national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: শুক্রবার থেকেই স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লা চত্বরের নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল দ্বিগুণ৷ এদিন প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা চলাকালীন গোটা এলাকা পাহারা দিতে দেখা গেল ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও)-এর তৈরি অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেমকে৷ এটি সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি হওয়া একটি অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম৷ লেজার রশ্মি ছুড়েই শক্রু ড্রোনকে ধ্বংস করে দিতে পারে এই ড্রোন৷

ডিআরডিও জানিয়েছে, আকাশপথে ড্রোনের মাধ্যমে জঙ্গি নাশকতা এড়াতেই এই অ্যান্টি-ড্রোন সিস্টেম তৈরি করা হয়েছে। হাতেকলমে পরীক্ষায় এই ড্রোন তার দক্ষতা প্রমাণও করেছে। এই অ্যান্টি-ড্রোন সিস্টেমটি আকাশপথে ১ থেকে ২.৫ কিলোমিটার অবধি লক্ষ্য স্থির করতে পারে। শত্রুপক্ষের ড্রোন আকাশেই চিহ্নিত করে নিমেষে তা ধ্বংস করতে পারে। শুধু তাই নয়, আকাশে তিন কিলোমিটার রেঞ্জের মধ্যে মাইক্রো-ড্রোনের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দিতেও পারে এই অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম।

ভারতের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লায় দাঁড়িয়ে দেশের প্রতিরক্ষাকে মজবুত করার ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ আর সেই আত্মনির্ভরশীল ভারতেরই পথে কয়েকধাপ এগিয়ে দিল ডিআরডিওর তৈরি এই ‘অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম’৷ প্রসঙ্গত, দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনে পরীক্ষামূলকভাবে মোতায়েন করা হয়েছিল। সেসময় লালকেল্লা ঘুরে নজরদারি চালিয়েছিল এই আনম্যানড এরিয়াল ভেহিকল৷

সাম্প্রতিককালে দেখা দিয়েছে নজরদারি রাখতে ও হামলা চালাতে সন্ত্রাসবাদী প্রধান অস্ত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে ড্রোন৷ তবে এদিন সবরকম নাশকতার ছক বানচাল করতে গুরু দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছিল মেড ইন ইন্ডিয়ার এই অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here