national news

Highlights

  • মধ্যপ্রদেশের ছেলে সত্যর্থ মিশ্র আর সুদূর চিনের মেয়ে জি হাওয়ের প্রেম পেল পরিণতি
  • বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন তারা
  • অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল চিনেও, কিন্তু করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে তা ভেস্তে যায়

মহানগর ওয়েবডেস্কঃ জাতপাত, ধর্ম, বর্ণ সবকিছুর উর্ব্ধে হৃদয়ের বন্ধন- প্রেম। তা না জানে ভাষা, না মানে সমাজের তৈরি করা কোনও বিভেদ। দেশ, কাল, সিমানা সব পেরিয়ে ভালবাসা খুঁজে নেয় নিজের আস্তানা। সেরকম এক উদাহরণই হল সত্যর্থ ও জি। মধ্যপ্রদেশের ছেলে সত্যর্থ মিশ্র আর সুদূর চিনের মেয়ে জি হাওয়ের প্রেম পেল পরিণতি। বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন তারা। ধুমধাম করে বিদেশিনীর সঙ্গে ছেলের বিয়ে দিলেন মিশ্র পরিবার। অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল চিনেও। কিন্তু করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে তা ভেস্তে যায়।

বছর পাঁচেক আগে কানাডার শেরিডন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যান সত্য়র্থ। সেখানেই তার পরিচয় হয় জি হাওয়ের সঙ্গে। বন্ধুত্ব দিয়েই শুরু হয় পথ চলা। সেখান থেকে ধীরে ধীরে একে অপরের কাছাকাছি আসতে থাকেন সত্যর্থ ও জি। বেশ কয়েকবছর সম্পর্ক চলার পর বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন তারা।

তবে প্রথমে বিষয়টা মেনে নিতে বেশ ইতস্তত বোধ করেছিল সত্যর্থের পরিবার। কানাডায় গিয়ে চিনা বউ নিয়ে আসবে ছেলে তা কেউ কখনও ভাবতেই পারেনি। তবে অবশেষে তা মেনে নেন উভয়পক্ষের পরিবারই।

গত ২৯ জানুয়ারি চিন থেকে ভারতে আসেন জি হাও ও তার পরিবার। মন্দসৌরে সত্যর্থর বাড়িতেই সম্পন্ন হয় বিয়ের যাবতীয় অনুষ্ঠান। উপস্থিত ছিলেন দুই পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠজনেরা। একদম অন্যরকম এই বিয়ে নিয়ে বেশ উৎসাহিত ছিলেন জি। শনিবারের অনুষ্ঠানে ভারতীয় সঙ্গীতের তালে নাচতেও দেখা যায় যুগলকে। বিয়েতে আমন্ত্রিত ছিলেন সত্যর্থর বন্ধু বান্ধব সকলেই।

সত্যর্থ জানান, উভয় পরিবার মিলে সিদ্ধান্ত নেয় যে, এনগেজমেন্ট ও বিয়ে দুটিই– ভারতীয় মতে ভারতেই হবে। চিনেও একটি অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, করোনাভাইরাস প্রকোপের কারণে, সেই পরিকল্পনা আপাতত স্থগিত রয়েছে।

অন্যদিকে জি হাও জানান, ভারত সুন্দর দেশ, এখানকার মানুষ সুন্দর, এখানকার খাবারও দারুন। ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে নববধূ বলেন, দুদেশের সংস্কৃতির মধ্যে বিস্তর ফারাক থাকলেও, কোথাও যেন একটা মিলও রয়েছে। শীঘ্রই কানাডায় ফিরবে এই নব দম্পতি। তারপর করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক সম্পূর্ণ শেষ হলে চিনে ফিরবে জি হাওয়ের পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here