corona

মহানগর ডেস্ক:  দেশে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মহারাষ্ট্র। মহারাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যা হু হু করে বেড়েছে। বর্তমানে করোনা সংক্রমণের গ্রাফ কিছুটা নিম্নগামী। এই পরিস্থিতিতেই করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের জন্য প্রস্তুত হতে শুরু করেছে মহারাষ্ট্র সরকার।

বিশেষজ্ঞরা বার বার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে শিশুরা। সেই সতর্কবার্তা মাথার রেখে মহারাষ্ট্র সরকার শিশুদের জন্য কোভিড সেন্টার গঠন করেছেন। মহারাষ্ট্র সরকার করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের কথা মাথায় রেখে টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে বলে জানা গিয়েছে।

মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তেজস টোপে জানিয়েছেন, করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন ১৮ বছরের কম শিশুরা। সেই কথায় মাথায় রেখেই শিশুদের জন্য কোভিড কেয়ার গঠন করা হয়েছে। শিশুদের জন্য ভেন্টিলেশনের জন্য আলাদা বেডের প্রয়োজন হয়। চিকিৎসার সরঞ্জামও আগে থেকে প্রস্তুত রাখা হচ্ছে বলে তেজস টোপে জানিয়েছেন।

করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। বৈঠকের পর মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী টোপে বলেন, শিশুদের জন্য একটি টাস্ক ফোর্স দ্রুত গঠন করা হবে। তৃতীয় ওয়েভে আগের থেকে বেশি পরিমাণে শিশুরা করোনায় আক্রান্ত হবেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রেই শিশুরা একা হাসপাতালে থাকতে পারবেন না, সঙ্গে তাদের মায়েরা থাকবেন। এই বিষয়টি মাথায় রেখেই সম্পূর্ণ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

কিছুদিন আগেই কেন্দ্র সরকারের তরফে জানানো হয়েছে,  দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউ অবশ্যম্ভাবী। এরপরেই বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রকে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুত হওয়ার নির্দেশ দেয়। যদিও করোনার তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলার জন্য কেন্দ্রের তরফে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। তবে আগাম সতর্ক থাকতে চাইছে মহারাষ্ট্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here