news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্রায় দুইমাস বন্ধ থাকার পর আগামী কাল থেকে শুরু হতে চলেছে অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা। যদিও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত হতে পারছে না মহারাষ্ট্র ও বাংলা। এখনই বিমান পরিষেবা চালু না করার আবেদন জানিয়েছে দুই রাজ্যের প্রশাসন।

মহারাষ্ট্রের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যেহেতু রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি খুবই খারাপ, তাই রেড জোনের মধ্যে পর্যাপ্ত পরিবহন পরিষেবা দেওয়া এখন সম্ভব নয়। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ ট্যুইটারে লেখেন, ‘রেড জোনে বিমানবন্দর চালু করা অত্যন্ত নির্বুদ্ধিতার কাজ। শুধু থার্মাল স্ক্রিনিং আর কয়েকটি সোয়াব টেস্ট করে করোনা আটকানো যাবে না। পর্যাপ্ত পরিবহন ব্যবস্থা মজুত নেই। ফলে মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতির ওপর প্রভাব পড়বে।’

আরেকটি ট্যুইটে তিনি লেখেন, ‘গ্রিন জোনের যাত্রীদের রেড জোনে নিয়ে এসে বিপদের মুখে ফেলার সিদ্ধান্ত আমার কিছুতেই বোধগম্য হচ্ছে না। এত যাত্রী আসবেন, তাদের টেস্ট করার জন্যও প্রচুর কর্মচারী দরকার। এই পরিস্থিতিতে তা অন্ত্যন্ত বিপজ্জনক।’

এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামীকাল থেকে কলকাতা ও বাগডোগড়া বিমানবন্দর চালু হওয়ার কথা। কিন্তু তা না করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী। ‘আমি জানি মানুষ অসহায় ও তারা বাড়ি ফিরতে চান। আমি সবাইকে স্বাগত জানাই। কিন্তু রাজ্যের পরিস্থিতি এখন খুব খাড়াপ। একদিকে মহামারী, তারপর সাইক্লোন আবার ঈদ। ফলে আমায় আরও তিনটে দিন সময় দিন। ২৮ মে থেকে বিমান পরিষেবা চালু করুন’, বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here