news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিশ্বের মতো ভারতেও মুহূর্তের মধ্যে বেড়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাস আতঙ্ক। এই সময় ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৭৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। আক্রান্তের নিরিখে সবচেয়ে বেশি সংখ্যা রয়েছে মহারাষ্ট্রে। সেই প্রেক্ষিতে করোনা তৎপরতায় আরও জোর দিচ্ছে উদ্ধব ঠাকরের সরকার। করোনা সংক্রমণে দেশের মধ্যে শীর্ষ থাকার বিষয়টি যে নিতান্তই ব্যাপক দুশ্চিন্তার তা হলফ করেই বলা যায়। এই প্রেক্ষিতেই চরম সিদ্ধান্তের পথে মহারাষ্ট্র সরকার। গোটা রাজ্য লকডাউন ঘোষণা করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

এদিন সাধারণ মানুষকে বার্তা দিয়ে উদ্ধব জানান, এখন দেশে তথা বিশ্বে একটা যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সকলকে একসঙ্গে মিলে এর মোকাবিলা করতে হবে। এই কথা বলেই তিনি জনসাধারণকে আহ্বান জানান, বাড়ি থেকে না বেরনোর জন্য। মন্তব্য করেন, খুব দরকার না পড়লে কেউ যেন বাড়ি থেকে না বের হয়। এই ঘোষণার পর অনেকেই মনে করছেন, মহারাষ্ট্র সরকার লকডাউনের পথেই হাঁটছে। তা হলে, ভারতের প্রথম রাজ্য হিসেবে পূর্ণ লকডাউনে যাবে মহারাষ্ট্র।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের নিরিখে বর্তমানে ভারত রয়েছে দু-নম্বর স্টেজে। এই সংক্রমণের হার স্টেজ তিনে গেলেই বিপদ। বর্তমানে যে ভাইরাস এক ব্যক্তি থেকে অন্য ব্যক্তির শরীরে সংক্রামিত হচ্ছে, সেটাই এক গোষ্ঠী থেকে অন্য গোষ্ঠীর শরীরে ছড়িয়ে যেতে পারে। সেই আতঙ্কেই কাঁপছে ভারত। মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যেই ৪৫ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে। সেই কারণে মুম্বইয়ের অন্যতম জনপ্রিয় এবং জরুরি পরিষেবা বন্ধ, যা হল ডাব্বাওয়ালাদের পরিষেবা। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে খবর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here