kolkata bengali news

ডেস্ক: বিতর্ক যেন কিছুতেই থামছে চাইছে না। একে অপরকে আক্রমণ করতে পিছু পা হঠছেন না সোনি এবং রঙ্গোলি। সকালেই রঙ্গোলিকে কড়া জবাব দিয়ে বলেন, মনে রেখো বলিউডে কঙ্গনাকে মহেশ ভাট লঞ্চ করেছেন। তুমি তাঁর পরিবারকে অপমান করে যাচ্ছ? আলিয়াকে ক্রমাগত আক্রমণ করতে ছাড়ছ তোমারা দুজনেই। বলার আগে ভেবে চিন্তে কথা বল। ‘ব্রিটিশ নাগরিক’, ‘মাঝারি মাপের’ অভিনেত্রী আর কত অপমান করবে তোমরা? প্রত্যেকেরই নিজের মত প্রকাশ করার অধিকার রয়েছে। এই জিনিসগুলো করে কী লাভ হচ্ছে?  এর পিছনে কী কারণ রয়েছে বলো তোমরা।

সোনির মন্তব্যের প্রেক্ষিতে রঙ্গোলি জানান, সোনিজি আপনার হয়তো মনে নেই যে মহেশ ভাট কঙ্গনাকে লঞ্চ করেননি। পরিচালক অনুরাগ বসুর ছবিতে সে কাজ করেছে। কঠোর পরিশ্রম করে কঙ্গনা এই জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছে। তোমরা কেউ ওর সঙ্গে ছিলে না। আর আপনি বলছেন মহেশজির মাধ্যমে সে বলিউডে ডেবিউ করেছে। আপনি হয়তো ভুলে গিয়েছেন সেদিনের কথা। কঙ্গনার সঙ্গে কত খারাপ ব্যবহার করা হয়েছিল। এমনকি তাঁকে চটি ছুড়ে মেরেছিলেন মহেশ ভাট।

তিনি আরও বলেন, সবার সামনে কঙ্গনাকে অপমান করতে ও ছাড়েননি তিনি। ‘ওহ লমহে’ ছবিতে না বলায় বলায় তোমরা কম অপমান করনি কঙ্গনাকে। ছবির স্ক্রিনিংয়ের সময় সবার সামনে পরিচালক-প্রযোজকমশাই তাঁকে চটি ছুড়ে মেরেছিলেন। সারা রাত সে কেঁদেছিল। মাত্র ১৯ বছর বয়স ছিল তাঁর। তোমরা রেহাই দেওনি। অনবরত অপমান করে গেছো। কী কী বলনি কঙ্গনাকে, বিশ্বাসঘাতকতা বলে অপমান করেছ তাঁকে। কিন্তু সে কিছু বলেনি। মুখ বুজে সব কিছু সহ্য করে গেছে।

পাশাপাশি আলিয়াকে নিয়ে বলেন, আপনি বলছেন আমরা নাকি সবসময় আলিয়ার পেছনে পড়ে থাকি। তাঁকে হিংসে করি। ঠিকই বলেছেন, আলিয়া তো ৩ বার জাতীয় পুরষ্কার পেয়েছেন। পাশাপাশি তাঁর অভিনয়ের ভূয়সী প্রশংসা হয়ে থাকে। এমনকি আলিয়ার বুদ্ধি নিয়ে সবাই কথা বলে। তাঁকে ঘিরে রেখেছে ‘নেপোটিজম’-এর দল কিন্তু কঙ্গনা  একাই একশো। নিজেকে এভাবেই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here