Parul

মহানগর ডেস্ক: গতকাল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা পুনর্গঠনে জন বার্লার মন্ত্রীত্ব প্রাপ্তি নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করলেন মহুয়া মিত্র। টুইটারে এদিন তিনি লেখেন, “বাংলাকে তিন ভাগে ভাগ করতে চাইলেন বিজেপি সাংসদ। বিজেপি তখন কোনো মন্তব্য করল না। আর সেই সাংসদই আজ মন্ত্রী হলেন। খেলা শুরু হয়ে গেছে।”

ads

স্পষ্টতই তাঁর ইঙ্গিত কেন্দ্র সরকার জন বার্লাকে প্রতিমন্ত্রী করে ঘুরিয়ে বাংলা ভাগকেই প্রচ্ছন্ন ভাবে সমর্থন করেছে।এর আগেও তৃণমূল বঙ্গভঙ্গের চক্রান্ত করার অভিযোগে জন্য বিজেপিকে সরাসরি অভিযুক্ত করেছে।   মুখে বিজেপি যতই কুলুপ এঁটে থাক না কেন, আসলে তারা হার সহ্য করতে না পেরে বাংলাকে দ্বিতীয় বারের জন্য ভাগ করতে চাইছে এমন অভিযোগ ছিল তাদের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেছিলেন, “উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিনবঙ্গ দুটোই পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে। উত্তরবঙ্গ কে কেন্দ্রশাসিত করে কি বিজেপি নতুন কাশ্মীর বানাতে চায়?”

উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই উত্তর বাংলার বিজেপি সাংসদ জন বার্লা প্রশাসনিক বঞ্চনার অভিযোগ তুলে উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য বানানোর দাবি তোলেন। কিছুদিন বাদে একইরকম দাবি তুলে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রাম কে আলাদা করে রাঢ়বঙ্গ নামে আলাদা রাজ্য বানানোর কথা বলেন বাঁকুড়ার সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। রাজ্য বিজেপি সরাসরি এই দাবির সাথে নিজেদের সংযুক্ত না করলেও রাজ্যের যে সকল মানুষ মনে ‘বঞ্চনার’ জন্য এই বাসনা পোষন করছে তাদের পালে ধোঁয়া দেওয়ার জন্যই বিজেপি নেতাদের দ্বারা এই ধরনের মন্তব্য করা হয়েছিল বলে মনে করেন রাজনৈতিক ব্বিশ্লেষক দের একাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here