ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পে বিরাট সাফল্য পেল প্রতিরক্ষা দপ্তর। এই প্রকল্পের আওতায় ৩০০টি ‘নাগ’ অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক মিসাইল তৈরি হয়েছে যা খুব শীঘ্রই ভারতীয় সেনায় সামিল হবে বলে জানা গিয়েছে। এই অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক মিসাইল গুলি মাটি থেকে লঞ্চারের সাহায্যেই লঞ্চ করা সম্ভব। এই মিসাইল সেনায় সামিল হলে যুদ্ধের ময়দানে ভারতের শক্তি অনেক পরিমাণে বেড়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

দীর্ঘদিন যাবত এই অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মিসাইল গুলির প্রয়োজন ছিল ভারতীয় সেনায়। ১৯৮০ সালে ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা সংস্থা এগুলি তৈরি করার প্রস্তাব নিলেও বিভিন্ন কারণে এতদিন পর্যন্ত তা করা হয়ে ওঠেনি। এই ৩০০টি নাগ মিসাইল ও ২৫টি কেরিয়ার কিনতে প্রতিরক্ষা দপ্তরের খরচ হবে আনুমানিক ৫০০ কোটি টাকা।

নাগ মিসাইল গুলি লঞ্চ করতে NAMICA নামের লঞ্চারপ্যাডের সাহায্য নেওয়া হয়। NAMICA-র সাহায্যে একবারে ৬টি মিসাইল বহন করা সম্ভব। সূত্রের খবর, ৭-৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ট্যাঙ্ক বা ইনফ্যান্ট্রি কমব্যাট ভেহিকেলে অব্যর্থ নিশানা লাগাতে সক্ষম নাগ। আপাতত ৩০০টি মিসাইল আসলেও কমপক্ষে ৩০০০টি অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক মিসাইল প্রয়োজন ভারতীয় সেনার। যদিও মিসাইলগুলিকে পরীক্ষা করা এখনও বাকি। পরীক্ষায় সফল ভাবে উতরে গেলেই আরও মিসাইলের বরাত দেওয়া হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here