kolkata bengali news

ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে প্রচারে বেরিয়ে মোদীকে টার্গেট করে বারে বারে সুর চড়ালেও বহরমপুরে গিয়ে বিজেপি অপেক্ষা মমতার কংগ্রেস বিরোধী আক্রমণ ছিল বেশি ঝাঁঝালো৷ আর বুধবার কান্দিতে জনসভা করতে গিয়ে কংগ্রেস, সিপিএম, বিজেপিকে একসারিতে রেখে বিঁধলেন চেনা ঢঙে৷ মোদীকে এদিন আরও একবার হিটলারের সঙ্গে তুলনা করে দিদি বলেন, দেশের জণগণ ফ্যাসিস্ত সরকার, হিটলার সরকার চায় না৷ তারা গান্ধীজি, নেতাজির মতো নেতা চায়৷ পংক্তির লাইন তুলে ধরে মোদীকে বিঁধে মমতার উক্তি, ছেলে ঘুমোলো, পাড়া জুড়োলো, মোদী এল দেশে, মানুষ ভাবছে মোদীর রাজজ্বে বাঁচব কিসে৷ এদিন তৃণমূল সুপ্রিমোর বক্তব্য যত এগিয়েছে ততই ধারালো হয়েছে তাঁর আক্রমণও ৷ জণগনের কাছে মোদী সরকারকে পাল্টে দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দিল্লিতে জিরো, ওড়িশায় জিরো, বাংলায় মোদী তুমি কি করে হবে হিরো৷

এদিন পুনরায় কংগ্রেস ও সিপিএম ও বিজেপি আঁতাত প্রসঙ্গ তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী৷ বহরমপুরে যেভাবে আক্রমণ শানিয়েছিলেন অধীর ও  অভিজিতকে, এদিন ফের একবার সেই চেনা সুরেই বললেন, বহরমপুর ও জঙ্গি থেকে কংগ্রেসকে লড়তে সাহায্য করছে আরএসএস৷ কংগ্রেসকে কটাক্ষ করে এদিন ১৯৯৮ সালে নিজের দল ছাডা়র কারণও বাতলালেন মমতা৷ বললেন কংগ্রেস সিপিএম-এর কাছে বিক্রি হয়ে গিয়েছিল তাই দল ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিলাম৷ কংগ্রেসকে আক্রমণ করছিলেনই ফের আক্রমণের মোড়া ঘোরালেন বিজেপির দিকে৷

এদিন দিদির আক্রমণের তালিকায় ছিল মোদী সরকারে বিভাজন নীতি থেকে কৃষক-শ্রমিদের আত্মহত্যা, নোটবন্দী, কর্মসংস্থান না হওয়া ইত্যাদি একাধিক বিষয়৷ মোদীকে তোপ দেগে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, হিন্দু হিন্দু খেলছেন মোদী৷ মোদীকে ভয় পান দেশের মানুষ৷ মোদীর আমলে জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গ টানতেও বাদ দেননি দিদি, বললেন, বিজেপির আমলে লাগামছাড়া দাম বাড়ছে জিনিসপত্রের৷ মোদীকে খোঁচা দিয়ে দিদি বলেন, মোদী ঠিক করে দেবেন কে কি খাবেন৷ এদিন প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ শানাতে গিয়ে এয়ার ইন্ডিয়া ক্লাসের নিরামিষ খাবার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলেও তোপ দাগেন দিদি৷ আরও তোপ দেগে বলেন, দিল্লির নেতারা উড়ে আসে উড়ে যায়, তৃণমূল সরকার সচ্ছভাবে কাজ করে৷ এদিন কান্দির মানুষের কাছে বহরমপুরের প্রার্থী অপূর্ব সরকারকে নির্বাচনে জয়ী করার জন্য আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here