kolkata bengali news

ডেস্ক: তীরে এসে তরি ডুবল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন সফর বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বেশ কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রীর চিন সফর নিয়ে গ্রীন সিগন্যাল দেয় নবান্ন। কিন্তু গতকাল থেকে দফায় দফায় সফরসূচি পরিবর্তন করা হয় বলে জানা গিয়েছে। সেইজন্য এই সফর বাতিল করে দেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন রাতেই চিনে উড়ে যাওয়ার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। কিন্তু সেই বৈঠক নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকায় চিন সফর বাতিল করছেন মুখ্যমন্ত্রী। মূলত কেন্দ্রের নীতি অনুযায়ী এই বছরে চিন সফরে যাওয়ার কথা মুখ্যমন্ত্রীর। সেই সফরে যেতে রাজিও হয়ে যান তিনি। কিন্তু চিন সরকারের তরফ থেকে গতকাল পর্যন্ত কোন এই বৈঠক নিয়ে কিছু জানানো হয়নি বলে এদিন নবান্নে এই সফর বাতিলের কথা ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

তিনি জানিয়েছেন যে ”এই বৈঠকের সূচি সম্পর্কে জানার জন্য ভারত সরকারের মাধ্যমে চিন সরকারের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু গতকাল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে কিছু না জানানোতে এই সফর সূচি বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।” নবান্ন মারফত জানা গিয়েছে শুক্রবার রাতে চিনে যাওয়ার কথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন সরকারের সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি, সাংহাই-এর বণিকসভায় যাওয়ার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। পাশাপাশি রাজ্যে বিনিয়োগের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল এই চিন সফর। ফেরার কথা ছিল আগামী ৩০ জুন। চিন সরকারের পক্ষ থেকে কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি তাই নবান্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানালেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র ও রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দে। এই সফর বাতিল নিয়ে বেজায় ক্ষুদ্ধ হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন চিনের বেজিংয়ে যে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হওয়ার কথা ছিল সেটাই না হলে এই সফরের কোন গুরুত্ব থাকে না। কাজ ফেলে রেখে শুধু ঘুরতে যাওয়ার কোনও মানে নেই। রাজনৈতিক মহলের জল্পনা যে, এই সফর রাজনৈতিক,কূটনৈতিক,অর্থনৈতিক দিকে দিয়ে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here