ডেস্ক: রাজ্যে বিজেপির প্রচারের জন্য মালদা জেলায় আসছেন বিজেপির সর্বভারতিয় সভাপতি অমিত শাহ। কিন্তু অভিযোগ উঠছিল, মালদা জেলায় হেলিকপ্টারে করে অমিত শাহের নামার অনুমতি দেয়নি জেলা প্রশাসন। কিন্তু বিজেপির তোলা সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ‘অমিত শাহের সভার জন্য সমস্ত অনুমতি দেওয়া হয়েছে। অযথা মিথ্যা বিভ্রান্তি মূলক খবর ছড়াচ্ছে বিজেপি।’

আগামী ৪ দিনের জন্য দার্জিলিং সফরে যাচ্ছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আগে এদিন বিমানবন্দরে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সামনে মমতা জানিয়ে দিলেন, ‘আসল তথ্য বিকৃত করে মিথ্যা প্রচার করে চলেছে বিজেপি। অমিত শাহের হেলিকপ্টার নামার জন্য হেলিপ্যাড নিয়ে কোনও সমস্যা হয়নি। ওনার নিরাপত্তার খাতিরেই হেলিপ্যাড এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সরানো হয়েছে। বিজেপির তরফ থেকে যে সমস্ত বক্তব্য পেশ করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ ভুল ও মিথ্যা কথা। আমরা বিজেপির মতো নই।’

উল্লেখ্য, বাংলায় সভা করার জন্য পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আগামিকালই মালদহে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তাঁর হেলিকপ্টার নামানোর জন্য প্রথমে কথা বলা হয় মালদা বিমানবন্দরের সঙ্গে কিন্তু মালদা অতিরিক্ত জেলা শাসকের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, বর্তমানে ওই বিমানবন্দরে সংস্কারের কাজ চলছে ফলে অনুমতি দেওয়া যাবে না। রাজ্যের তরফে এই জবাব পাওয়ার পর, মালদায় এক বেসরকারি হোটেলে হেলিপ্যাড তৈরির ব্যবস্থা করে বিজেপি। তবে হোটেল কর্তৃপক্ষের তরফে ওই হেলিপ্যাড বানানোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। এর জেরে বিজেপির তরফে জানানো হয়, সরকার নিজে তো অনুমতি দেয়নি, উল্টে অন্য কেউ যাতে অনুমতি দিতে না পারে তার জন্য কলকাঠি নাড়ছে।

তবে হেলিপ্যাড যে তৈরি হবে এবং অমিত শাহ যে সভাও করবেন তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বিজেপির তরফে। তৃতীয় বিকল্প হিসাবে বিজেপির তরফে ইতিমধ্যেই যোগাযোগ করা হয়েছে বিএসএফের সঙ্গে। শীঘ্রই বিএসএফের জমিতে অমিত শাহের হেলিপ্যাড তৈরি করা হবে বলে বিজেপি সূত্রের খবর। তবে রাজ্য সরকারের তরফে অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে যে অভিযোগ বিজেপি শুরু থেকেই করে আসছে তা সমূলে খারিজ করে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here