kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা ভাইরাসের হানায় ক্রমশ জটিল হচ্ছে পরিস্থিতি। গোটা দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা কিছুটা আশাব্যাঞ্জক হলেও ইতিমধ্যে তিনজনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে। ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। এই জটিল সময়ে যতটা সম্ভব ঘরে থাকা এবং নিজেকে ভিড় থেকে আলাদা করে রাখাই সুরক্ষিত থাকার একমাত্র উপায়। সেই কারণে পশ্চিমবঙ্গের নাগরিকদের উদ্দেশে এবার বিশেষ বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য সংস্কৃতি বিভাগের পক্ষ থেকে এই আবেদন জানানো হয়েছে।

রাজ্যবাসীর কাছে করা আবেদনে মমতা বলেছেন, যারা বিদেশ থেকে বা বাইরের রাজ্য থেকে এসেছেন তারা যেন ১৪ দিন বাড়ি থেকে না বের হন। দেখে নিন রাজ্যবাসীর কাছে কী আবেদন জানালেন মমতা…

‘সতর্ক থাকুন, ভালো থাকুন।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হচ্ছে যারা বিদেশ থেকে বা বাইরের রাজ্য থেকে এসেছেন, তাঁরা ১৪ দিন বাড়ির বাইরে বেরবেন না।

নিজেকে অবশ্যই আলাদা করে রাখুন। বাকিদের সুস্থ ও ভাল রাখতে নিজের ব্যবহার করা জিনিস অন্যরা যাতে ব্যবহার না করেন, তা নিশ্চিত করুন।

সাবধানে থাকুন, বিশ্রামে থাকুন। জ্বর, শ্বাসকষ্ট বা অন্য কোন উপসর্গ দেখা দিলে, ডাক্তারবাবুর পরামর্শ নিন।

বিদেশ থেকে বা বাইরের রাজ্য থেকে যারা এসেছেন, তাঁদের আরও একবার অনুরোধ করা হচ্ছে ১৪ দিন বাড়ির বাইরে না বেরতে। বাইরের কাজকর্ম কিছুদিন পরে করুন।

আতঙ্কিত হবেন না, আতঙ্ক ছড়াবেন না।

সকল রাজ্যবাসীকে অনুরোধ করা হচ্ছে কোন অবস্থাতেই আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। সেরকম পরিস্থিতি দেখলে, স্থানীয় পুলিশ-প্রশাসনকে খবর দিন।
সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’

আগামী কাল অর্থাৎ ২২ মার্চ গোটা দেশে জনতা কার্ফুর ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওইদিন সকাল ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দেশবাসীকে ঘর থেকে বের না হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। এর মাধ্যমে ভাইরাসের সংক্রমণ কিছুটা হলেও রুখে দেওয়া যেতে পারছেন বলে আশা করছেন সকলে। কিন্তু এরই মাঝে অনেকেই বিদেশ থেকে ফিরে আইসোলেশনে না থেকে দিব্বি ঘুরে বেড়াচ্ছেন। যা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কয়েক গুণ। ইতিমধ্যেই আক্রান্ত হয়েছেন ২৭১ জন। মৃত্যু হয়েছে পাঁচের। ফলে যেন তেন প্রকারে এখনই এই ভাইরাসকে আটকানো না গেলে আরও খারাপ সময় আসতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here