mamata
এলগিন রোডে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন মমতার
mamata
এলগিন রোডে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন মমতার

মহানগর ডেস্ক: নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিনটি আগেই ‘দেশনায়ক দিবস’ হিসেবে আগেই ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই উপলক্ষে শ্যামবাজার থেকে রেড রোডে সুভাষচন্দ্রের মূর্তির পাদদেশ পর্যন্ত পদযাত্রা রয়েছে তাঁর।

তার আগে নেতাজি ভবনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন মমতা। লালবাজার সূত্রের খবর, শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড় থেকে সওয়া ১২টা নাগাদ ওই শোভাযাত্রা শুরু হবে। ভূপেন বসু অ্যাভিনিউ, যতীন্দ্রমোহন অ্যাভিনিউ, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ, ধর্মতলা, রানি রাসমণি অ্যাভিনিউ হয়ে রেড রোডে সুভাষচন্দ্রের মূর্তি পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটার যাবে ওই মিছিল। পুলিশ জানিয়েছে, ওই মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা আগেই শ্যামবাজারে এসে জমায়েত করবেন। ফলে সেই সব রাস্তাও যানজটের কবলে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। শোভাযাত্রা চলাকালীন ওই রাস্তায় সাময়িক ভাবে গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখা হবে বলেও কলকাতা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রীর ওই মিছিল ধর্মতলায় পৌঁছনোর কিছু পরেই শহরে এসে পৌঁছনোর কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে একটি অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন প্রধানমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সাক্ষাতেরও সম্ভাবনা রয়েছে।

শনিবার সকালে নেতাজিকে নিয়ে ৩টি টুইট করেন মমতা। প্রথমটিতে লেখেন, ‘দেশনায়ক সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিনে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাই। উনি ছিলেন প্রকৃত নেতা। মানুষের ঐক্যে বিশ্বাসী ছিলেন। আমরা আজকের দিনটা ‘দেশনায়ক দিবস’ হিসাবে পালন করছি। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বর্ষব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে’।

মুখ্যমন্ত্রীর দ্বিতীয় টুইট বলছে, ‘রাজারহাটে একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হবে। নামকরণ হবে ‘আজাদ হিন্দ ফৌজ’-এর নামে। এ ছাড়া নেতাজির নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হবে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরো খরচ রাজ্য সরকার বহন করবে। যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে বিদেশের নানা বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ থাকবে’।

তৃতীয় টুইটে শনিবারের কর্মসূচির কথা উল্লেখ করেন মমতা। ‘এক বৃহৎ পদযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে আজ। চলতি বছর প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডও নেতাজির নামেই উৎসর্গ করা হবে। শনিবার সওয়া ১২-য় সাইরেন বাজানো হবে। প্রত্যেককে আর্জি জানাচ্ছি, বাড়িতে শঙ্খ বাজাবেন’। সেই সঙ্গে মমতা আরও একবার ২৩ জানুয়ারি জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন। টুইটে লেখেন, ‘২৩ জানুয়ারির দিনটিকে জাতীয় ছুটি ঘোষণা করুক কেন্দ্র’। এর পর তিনি হ্যাশট্যাগ করে লেখেন ‘দেশনায়ক দিবস।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here