kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিজেপির আরএসএস-এর পাল্টা এবার বাংলায় ‘বঙ্গ জননী কমিটি’ ও ‘জয় হিন্দ বাহিনী’। বৃহস্পতিবার নৈহাটির ধর্নামঞ্চে গিয়ে এমনই ঘোষণা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মূলত রাজ্যের মহিলাদের নিরাপত্তা দিতেই ব্লকে-ব্লকে মহিলা ও ছাত্র-যুবদের নিয়ে এই দুটি পৃথক বাহিনী গড়ার ঘোষণা করলেন তিনি।

এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেবল আরএসএস-এর পাল্টা বাহিনী গড়ার ঘোষণা করেননি, এই বাহিনীর ভাবধারা কী হবে এবং বাহিনীর সদস্যরা কী পোষাক পরবে, তাও স্থির করে দিয়েছেন। মমতার কথায়, নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর আদর্শে প্রতিটি ব্লকে ছাত্র-যুবদের নিয়ে গঠিত হবে জয় হিন্দ বাহিনী। আর একই আদর্শে মহিলা সদস্যদের নিয়ে গঠিত হবে বঙ্গ জননী কমিটি। আরএসএস-এর মতো এই দুটি বাহিনীর সদস্যদেরও নির্দিষ্ট পোশাক থাকবে। জয় হিন্দ বাহিনীর সদস্যরা পড়বেন সাদা পাজামা-পাঞ্জাবী। আর বঙ্গ জননী কমিটির সদস্যদের পোশাক হবে গঙ্গা-যমুনা পাড় বিশিষ্ট হলুদ রঙের শাড়ি। প্রত্যেকের নির্দিষ্ট পরিচয়পত্র থাকবে। এছাড়া নিরাপত্তার খাতিরে প্রত্যেকের হাতে দেওয়া হবে সুন্দর ছবি আঁকা শান্তিনিকেতনী ডাণ্ডা। মহিলা ও পুরুষ সদস্যদের নিয়ে গঠিত এই দুটি কমিটি যৌথভাবে কাজ করবে। আর কোথাও কোনো মহিলার অত্যাচার দেখলেই ওই শান্তিনিকেতনী ডাণ্ডা হাতে তাড়া করবে। রাজ্যের মোট ৪০০টি ব্লকে বঙ্গ জননী কমিটি ও জয় হিন্দ বাহিনী গঠন করা হবে বলে তৃণমূল সুপ্রিমো জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে ফল প্রকাশের পর থেকেই অনেকটা কোণঠাসা হয়ে গিয়েছে তৃণমূল। রাজ্যে বিজেপি হাওয়াও বইতে শুরু করেছে। এই পরিস্থিতিতে দলকে পুনরায় উজ্জীবিত করতেই তৃণমূল সুপ্রিমো বিজেপির আরএসএস বাহিনীর পাল্টা বিশেষ বাহিনী গড়ার ঘোষণা করলেন বলে রাজনৈতিক মহলের দাবি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here