Home Featured ‘দু’হাতে রক্ত মেখে তৃতীয়বার সিংহাসনে বসেছেন মমতা’, জেপি নাড্ডা

‘দু’হাতে রক্ত মেখে তৃতীয়বার সিংহাসনে বসেছেন মমতা’, জেপি নাড্ডা

0
‘দু’হাতে রক্ত মেখে তৃতীয়বার সিংহাসনে বসেছেন মমতা’, জেপি নাড্ডা
Parul

 

মহনগর ডেস্ক: ভোট পরবর্তী হিংসা খতিয়ে দেখতে এসে আমি যা প্রত্যক্ষ করলাম, তাতে আমার দেশভাগের সময়ের কথা মনে পড়ছে। ১৯৪৬ সালের ১৬ আগস্ট কলকাতায় যে নৃশংস গণহত্যা হয়েছিল, সেদিনের মতই ২ তারিখের পর থেকে হত্যালীলা চলছে বাংলায়। ভোটের আগে যেভাবে ‘খেলা হবে’ স্লোগানে মেতেছিল তৃণমূল, এগুলো তারই বহিঃপ্রকাশ। দুদিনের বাংলা সফরের শেষে সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই মন্তব্য করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

তৃণমূল সুপ্রিমোর বিরুদ্ধে তোপ দেগে এদিন নাড্ডা বলেন, ‘যেভাবে নৃশংস হত্যা করা হয়েছে আমাদের কর্মীদের, এবং তার প্রেক্ষিতে টানা ৩৬ ঘণ্টা ধরে মমতা বন্দোপাধ্যায় যেভাবে চুপ করে ছিলেন, তাতেই বোঝা যায় এই সন্ত্রাসের পিছনে প্রত্যক্ষ মদত রয়েছে তাঁর।’ এরপরেই মমতাকে উদ্দেশ্য করে তীব্র ভাষায় আক্রমণ শানিয়ে তিনি বলেন, ‘দুই হাতে রক্ত মেখে তৃতীয় বারের জন্য বাংলার সিংহাসনে বসেছেন মমতা।’

দুদিনের বাংলা সফরে তিনি যা পর্যবেক্ষণ করেছেন, সেই সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘বিজেপির তৃণমূল স্তরের কর্মীদের টার্গেট করে তাদের উপর আক্রমণ করেছে তৃণমূলের গুণ্ডারা। বিজেপি কর্মীদের বাড়ির মহিলাদের উপর অত্যাচারের পাশাপাশি তাঁদের ধর্ষণ করছে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। কলকাতা গণহত্যর সময় যেভাবে বাংলার মাটি রক্তে রাঙা হয়েছিল, ঠিক একই ভাবে ভোট পরবর্তী হিংসায় রক্তে ভিজেছে বাংলার মাটি।’ তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ ২৪ পরগনার সন্দেশখালি, গোসাবা, ক্যানিংয়ের একাধিক গ্রামের মানুষ তৃণমূলের অত্যাচারে আজ ঘরছাড়া।’  তবে বিজেপি নেতৃত্ব যে হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না, তাও স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন তিনি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here