নিখোঁজ রাজীবের খোঁজ মমতাই দিতে পারবেন, সিবিআইয়ের পথ প্রদর্শক হলেন মুকুল

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ধর্না মঞ্চে আইপিএস অফিসার রাজীব কুমারকে পাশে নিয়ে গোটা দেশের সামনে বিতর্কের রঙে নিজেকে রাঙিয়ে ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই দাগ এত সহজে যে যাওয়ার নয় তার প্রমাণ মিলল এদিন। সিবিআইয়ের গ্রফতারি থেকে বাঁচতে আপাতত নিখোঁজ রাজীব। হন্যে হয়ে তাঁকে খুজছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এরই মাঝে অতীতের সেই পুরানো কথা স্মরণ করিয়ে মুকুল রায়ের দাবি, রাজীব কোথায় রয়েছেন সে তথ্য একমাত্র মমতাই দিতে পারবেন। আর কেউ তা বলতে পারবে না।

আদালতের নির্দেশে রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ উঠে যাওয়ার পর শনিবার সকাল ১০ টায় তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছিল সিবিআই। যদিও গ্রেফতারির ভয়ে সিজিও কমপ্লেক্সের চত্বর মাড়াননি। উল্টে একটি মেল করে জানিয়ে দেন ১ মাস সময় চান তিনি। তবে সেসবকে বিশেষ পাত্তা না দিয়ে খোঁজ খোঁজ রব পড়ে যায় সিবিআই অফিসে। এই সবকিছুর মাঝেই রাজীব ইস্যুতে মমতাকে একহাত নিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। সংবাদমাধ্যমের সামনে শনিবার রাতে তিনি বলেন, রাজীবকে জেরা করার ক্ষেত্রে সরকারী কাজে বাধা দিয়েছেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উর্দি পরিহিত একজন অফিসারকে নিয়ে ধর্নায় বসেছিলেন উনি। আর বর্তমানে রাজীব কথায় আছেন এর জবাব কেউ দিতে পারবে না। এটা একমাত্র উনিই দিতে পারবেন।’ মুকুলের এহেন মন্তব্যের পর রীতিমতো চাঞ্চল্য শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

উল্লেখ্য, সারদা কাণ্ডে তথ্যপ্রমাণ লোপাটের অভিযাগে সিবিআইয়ের খাতায় রাজীব কুমারের নাম ওঠার পর একপ্রস্ত নাটক দেখেছে রাজ্যবাসী। প্রথমে রাজীবকে জেরার জন্য তার বাড়িতে গেলে কলকাতা পুলিশের তরফে সিবিআইকে হেনস্থা। এরপর মমতার ধর্না। সবশেষে দীর্ঘ টালবাহানার পর রাজীবকে জেরা করার সুযোগ পায় সিবিআই। সেখানে ওঠে তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগ। বার বার তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার দাবি তুলেও রাজীবকে সেভাবে প্যাঁচে ফেলতে পারেননি সিবিআই কর্তারা। রক্ষাকবচ উঠে যাওয়ার পর এবার তাঁকে জেরার জন্য ডাকা হলেও কোনও খোঁজ মিলল না রাজীবের। যদিও সিবিআইকে মেল করে রাজীব জানিয়েছেন স্ত্রীর অসুস্থতার জন্য একমাসের সময় চান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here