kolkata news

Highlights

  •  মানুষ ভোট দিতে পারলে বিজেপি’র ভোট ও আসন বাড়বে বলে দাবি মুকুলের
  • আর তা বুঝতে পেরে সরকার ভেঙে দেওয়ার কথা বলছেন মমতা
  • বারাসতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে এমন দাবি করলেন মুকুল রায়

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: পঞ্চায়েত ভোটের পুনরাবৃত্তি হতে চলে পুরভোটে। তারপরও মানুষ ভোট দিত পারলে বহু আসন জিতবে বিজেপি। তবে এখনই কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানাচ্ছেন না তিনি। শুক্রবার বারাসত আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে এসে এই মন্তব্য করেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। তাঁর দাবি, পুরভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনীর ক্ষেত্রে সরকার বা হাইকোর্ট সিদ্ধান্ত নিতে পারে একমাত্র। মমতা ব্যানার্জীর নিজস্ব বাহিনী আছে, উনি তাই কেন্দ্রীয় বাহিনী চাইবেন না।

পঞ্চায়েত ভোটের মতই হিংসার আশঙ্কা রেখে মুকুল রায়ের দাবি, রাজ্যের প্রতিটি জেলে ২০০০ বিজেপি কর্মীকে মিথ্যা মামলায় আটকে রাখা হয়েছে। ৩৫ বছরে তার বিরুদ্ধে একটিও মামলা ছিল না। আর মাত্র দু’বছরে ৪১টা মামলা হয়েছে। রাজ্যের সব পুরসভার ভোট এক সঙ্গে করাই রীতি বলে দাবি মুকুল রায়ের। তাঁর মত, মানুষ ভোট দিতে পারলে বিজেপি’র ভোট ও আসন বাড়বে বহুগুণ। সেটা বুঝেই মমতা ব্যানার্জী তার সরকারকে ভেঙে দেওয়ার কথা বলছেন। মানুষের সমবেদনার ভোট পেতে চাইছেন। তা হতে দেওয়া হবে না। কিন্তু, সিএএ না মানায় রাজ্যে সাংবিধানিক সংকট তৈরি হচ্ছে। সংবিধান জানা ব্যক্তিরা সংসদে রয়েছেন, সেখানেই রাজ্যের সাংবিধানিক সংকট নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানিয়ে দেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

তাঁর অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রী সংবিধানের শপথ নিয়ে সংবিধানের প্রতি দায়বদ্ধ থাকছেন না। এদিন বিজেপি নেতা মুকুল রায় দাবি করেন, জেএনইউ থেকে শান্তিনিকেতন­- সারা ভারতে অতি বাম প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি সক্রিয়। তারাই বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে গণ্ডগোল পাকাচ্ছে বলে মত মুকুল রায়ের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here