kolkata bengali news mamta

মহানগর ওয়েবডেস্ক: না আছে প্রাকৃতিক দুর্যোগ, না আছে চাষের ঘাটতি। তাও গোটা দেশে বেনজির ভাবে দাম বেড়েই চলেছে রান্নার অন্যতম প্রধান সামগ্রী পেঁয়াজের। এদিন কলকাতার বাজারে পেঁয়াজের দাম প্রায় ২০০ টাকা প্রতি কেজি। যা মধ্যবিত্ত কিংবা উচ্চবিত্ত থেকে শুরু করে সমাজের সকল স্তরের মানুষদের কাছে নাভিশ্বাস তুলে দিয়েছে। এদিকে বাজারে পেঁয়াজের দাম লাগামছাড়া হলেও কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি কেন্দ্রীয় সরকারকে। তাই বাংলা তথা কলকাতার মানুষের কথা ভেবে এবার গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

সূত্রের খবর, কলকাতা তথা পশ্চিমবঙ্গের বাজারে পেঁয়াজের দামকে নিয়ন্ত্রনে আনতে ও সাধারণ মানুষের হেঁশেলে পেঁয়াজের যোগান বাড়াতে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নিতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সূত্রের খবর, সুদূড় ইজিপ্ট থেকে মোট ৮০০ টন পেঁয়াজ আমদানি করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। ন্যাশানাল এগ্রিকালচার কোওপারেটিভ মার্কেটিং ফেডেরেশন অফ ইন্ডিয়ার সাহায্যেই পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করতে চলেছে ইজিপ্টের পেঁয়াজ। মূলত ডিসেম্বরের শেষে এই পেঁয়াজ পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করবে বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার ইজিপ্টের কোওপারেটিভ এজেন্সির সঙ্গে কথা বলে বাজার চলতি ৫৫ টাকা প্রতি কেজি দামের পেঁয়াজ মুম্বই বন্দরে আনার অনুমতি দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মুম্বই থেকে কলকাতাতে তথা পশ্চিমবঙ্গের বাজারে আনতে ইজিপ্টের সঙ্গে বিশেষ চুক্তিবদ্ধ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মূলত মুম্বই বন্দর হয়ে এই পেঁয়াজ আসবে বলে জানা গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ”ডিসেম্বর মাসের শেষে প্রত্যেক সপ্তাহে মোট ২০০ টন করে পেঁয়াজ আসবে ইজিপ্ট থেকে। এইভাবে মোট ৮০০ টন পেঁয়াজ প্রবেশ করবে পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে। যদিও ৫৫ টাকা প্রতি কেজি দামে পেঁয়াজ মুম্বই বন্দরে প্রবেশ করলেও কলকাতার বাজারে সেটি বিক্রি করা হবে ৬৫ টাকা প্রতি কেজি দরে।” নাসিকে পাইকারি বাজারে ৪০ কেজি পেঁয়াজের বস্তার দাম ৫,৪০০ টাকা করে হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

গত বুধবার পর্যন্ত কলকাতার পোস্তার বাজারে ১২৫ কোটি টাকায় বিক্রি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে এদিন সংসদের কক্ষে দাঁড়িয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তিনি পেঁয়াজের দাম নিয়ে এদিন বলেছেন, ”চিন্তা করবেন না, আমি এমন একটা পরিবার থেকে এসেছি যেখানে পেঁয়াজ বা রসুন খাওয়া হয় না। তাই এটা নিয়ে আমার কোনও মাথাব্যথা নেই।’ তাঁর এই মন্তব্যকে সমর্থন করে পাশ থেকে আবার বিজেপি সাংসদরা বলে ওঠেন, ‘বেশি পেঁয়াজ খেলে মানুষ ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে।’ কেউ আবার বলেন, ‘এমনিও পেঁয়াজ খেলে ক্যানসার হয়ে যায়।’ আর এই অর্থমন্ত্রীর এই বক্তব্যের জন্য সোশ্যাল মিডিয়াতে ট্রোল্ড হচ্ছেন নির্মলা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here