national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এর আগে পাঁচটি মেয়ে রয়েছে৷ এবার তার ছেলে চাই৷ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীয়ের গর্ভে ছেলে না মেয়ে রয়েছে তা জানতে চেয়ে স্ত্রীয়ের পেট কেটে ফেলল যুবক৷ নৃশংস এই ঘটনার স্বাক্ষী থাকল উত্তরপ্রদেশ বরেলী৷ ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিজের স্ত্রী পেট কেটে ফেলে ওই যুবক৷ বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ওই মহিলা৷

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই মহিলার চিত্কার শুনে ছুটে আসে প্রতিবেশীরা৷ ঘটনা দেখে শিউরে ওঠেন তারা৷ তত্ক্ষণাত্ তারা মহিলাকে ভর্তি করেন বরেলী হাসপাতালে৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, বছর ৩৫-এর পান্নালাল সবসময় ছেলে চাইত৷ পাঁচবার মেয়ে হওয়ার পর তার স্ত্রীয়ের সঙ্গে অন্তত খারাপ ব্যবহার করত যুবক৷ এবার তার স্ত্রী অন্তঃসত্তা হওয়ার পর গর্ভস্থ সন্তান ছেলে না মেয়ে তা জানার জন্য স্ত্রীয়ের পেটে ছুরি চালায় পান্নালাল৷

পান্নালালের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করে ওই মহিলার পরিবারের লোকেরা৷ সিনিয়র পুলিশ আধিকারিক প্রবীণ সিং চৌহান জানিয়েছেন, এই ঘটনার পরে পান্নালালের নামে একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে। তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই যুবতী ৬ থেকে ৭ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here