kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারুইপুর: করোনায় যখন গৃহবন্দি অবস্থায় থাকতে বলা হচ্ছে মানুষজনকে, আর তখন গৃহহীন হয়ে পড়লেন কয়েকশো পরিবার। নদীর লোনাজল গ্রাস করে ফেলল সেই সমস্ত মানুষগুলোর বাড়িঘর। শুধু বাড়িঘর নয়, সঙ্গে মাঠের পর মাঠ ফসলি জমি গিয়ে নদীগর্ভে। বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট আতঙ্কিত স্থানীয় মানুষরা।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা বাসন্তী থানার কুলতলি এলাকায়। কুলতলিতে মাতলা নদীর বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়ে গেল কুলতলি গ্রামের বেশ কিছু অংশ। শুধু কুলতলি এলাকা প্লাবিত হল এমন নয়। গোসাবা ব্লকের রাঙাবেলিয়া-সহ বিভিন্ন এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী বাঁধে ফাটল। সেখানেও প্রায় কয়েক কিলোমিটার এলাকায় বাঁধে ফাটল দেখা দিয়েছে। বুধবার পূর্ণিমার ভরা কোটালে এই সমস্ত এলাকাগুলি প্লাবিত হয়ে যায় ও ফাটল দেখা দেয়।

বুধবার দুপুরে বাসন্তীতে গিয়ে দেখা যায়, মাতলা নদীর বাঁধ ভেঙে হু হু করে জল ঢুকছে গ্রামে। বহু মানুষের মাছের পুকুর, চাষের জমি, বাড়ি-ঘর সবই একে একে চলে যায় জলের তলায়। বিষয়টা স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত মানুষজন। কুলতলির বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় বাসন্তী হাইওয়েতেও  জল চলে আসে। পরে নদীতে ভাটা নামলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য তড়িঘড়ি সেচ দফতরের আধিকারিকরা এলাকায় আসেন। সেচ দফতরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, খুব শীঘ্রই বাঁধ মেরামতি করা হবে। এদিন নদী বাঁধ ভেঙে যাওয়ার কারণে বহু মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে চলে গেছেন অন্যত্র। তা ছাড়া বেশ কিছু মানুষকে প্রশাসনের তরফ থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here