মহানগর ওয়েবডেস্ক: বাংলাদেশে বড়োসড়ো ফেরি দুর্ঘটনা। সোমবার সকাল ৯টা নাগাদ ডুবে যায় এমএল মর্নিং বার্ড নামের একটি লঞ্চ। এখনও পর্যন্ত ২৩ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উদ্ধারকারীরা জানিয়েছেন, সোমবার সকালে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অন্য একটি জলযানের সঙ্গে ধাক্কা লাগে ওই ফেরির। তার পরেই ঘটে যায় এই বিপত্তি। ডুবুরি নামিয়ে এখনও পর্যন্ত ২৩ জনের দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৪ জন পুরুষ, ৬ জন নারী ও শিশু ৩ জন। বাকিদের খোঁজে ডুবুরি নামিয়ে চলছে তল্লাশি। ঘটনার কথা জানতে পেরে আত্মীয়েক খোঁজে ফরাসগঞ্জ ঘাটে ভিড় জমিয়েছেন বহু মানুষ। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে নামানো হয়েছে নৌ বাহিনী, দমকল ও নৌপুলিশকে।

তবে কী কারণে লঞ্চটি ডুবে গেল তা নিয়ে ধন্দ। করোনা সংক্রমণের মাঝেই প্রায় পঞ্চাশজন যাত্রীকে একসঙ্গে কী করে লঞ্চে উঠতে দেওয়া হল সেই প্রশ্ন উঠে আসছে। যদিও সেই প্রশ্নে মুখে কুলুপ এঁটেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের আধিকারিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here