kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: নির্বাচনের ঠিক আগে তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল একেবারে প্রকাশ্যে চলে এল। বিধায়কের বিরুদ্ধে প্ল্যাকার্ড হাতে মিছিল করল শাসক দলের একাংশ। সোমবারের এই ঘটনায় তীব্র রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়াল মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘি এলাকায়। জানা গিয়েছে, সাগরদিঘি এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল অব্যাহত। একদিকে আছেন বিধায়ক সুব্রত সাহা ও তাঁর অনুগামীরা এবং অন্যপক্ষে আছেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বেরাজুল ইসলাম ও তৃণমূলের ব্লক সভাপতি নুরুজ্জামাল-সহ তাদের সমর্থকরা।

এদিন, মূলত সাগরদিঘি পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বেরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বিধায়কের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। এই মিছিলে যোগ দেন সাগরদিঘি পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূলের সদস্য ও গ্রামপঞ্চায়েত প্রধানের একাংশ। মিছিল শেষে সাগরদিঘি পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বেরাজুল ইসলাম জানান, আমরা সাগরদিঘি বিধানসভায় তৃণমূলের প্রার্থী হিসাবে সাগরদিঘির ভূমিপুত্রকে চাই। বিধায়ক সুব্রত সাহার বাড়ি বহরমপুর হওয়ায় তাঁকে সাধারণ মানুষ কাছে পান না। বিভিন্ন পরিষেবা থেকে বঞ্চিত থাকেন।

বেরাজুলের আরও অভিযোগ, লোকসভা নির্বাচনে বিধায়ক সুব্রত সাহা কিছু জায়গায় বিজেপির হয়ে ভোট-প্রচার করেছেন। তাই তাঁকে বিশ্বাস করা যাচ্ছে না। এছাড়াও তিনি পঞ্চায়েত সমিতির নানান কাজে বাধা সৃষ্টি করছেন। আমরা এখানে ঠিকমতো কাজ করতে পারছি না। উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাগরদিঘির মানুষ। তবে এই অভিযোগ নিয়ে এখনও পর্যন্ত বিধায়ক সুব্রত সাহার পক্ষ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here