নিজস্ব প্রতিবেদক, আসানসোল: ২১শে জুলাইকে স্মরণে রেখে আসানসোলে তৃণমূলের মহামিছিল ও জনসভার কর্মসূচী নেওয়া হয় রবিবার। এদিনের মহামিছিল শুরু হয় আসানসোলের পুরানো রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রম মোড় থেকে। মিছিলটি শেষ হয় সিটি বাসস্ট্যাণ্ডের কাছে। মিছিল শেষে আয়োজিত জনসভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শ্রম, আইন ও জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগের মন্ত্রী মলয় ঘটক, আসানসোল দক্ষিন বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলটির তৃণমূল বিধায়ক উজ্জ্বল চ্যাটার্জী, বারাবনির তৃণমূল বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়, দুর্গাপুরের কংগ্রেস বিধায়ক বিশ্বনাথ পাড়িয়াল, তৃণমূলের জেলা সভাপতি ভি শিবদাসন, বিদায়ী জেলা সভাধিপতি বিশ্বনাথ বাউড়ি সহ আরো অনেকে।

এদিনের মহামিছিল প্রায় ২৫০০০ মানুষের সমাবেশ ঘটে। মিছিল ও জন সমাবেশকে সম্বোধন করতে গিয়ে বিশ্বনাথ পাড়িয়াল বলেন,’বাংলায় রাম – রহিমের বিভাজন নেই। তাই বাংলার বুকে বিজেপির ঠাঁই নেই।’ পাশাপাশি মন্ত্রী মলয় ঘটক বলেন,’২০১৯ এ দেশের নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম মমতা ব্যানার্জী। ভাঁওতাবাজির সরকারের কাছ থেকে মানুষের সমর্থন সরে গেছে। দেশের সমস্ত উপনির্বাচনে মানুষ তা বুঝিয়ে দিয়েছে।’ তবে এদিনের মহামিছিল ও জনসভায় জেলার সমস্ত নেতৃত্বকে দেখা গেলেও আসানসোলের মেয়র ও পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারীকে দেখা যায়নি। এই ঘটনায় শিল্পাঞ্চলের রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠছে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল নিয়েও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here