ডেস্ক: আধার কার্ডের মতোই পাসপোর্ট নিয়েও ঘোষণা এবং তারপর ভোলবদল, এই ধারা অব্যাহত কেন্দ্রের। একমাসও হয়নি কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল এখন থেকে আর ঠিকানার প্রমাণের জন্য ব্যবহার করা যাবে না পাসপোর্ট। কিন্তু মঙ্গলবার সেই সিদ্ধান্ত থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে কেন্দ্র জানালো, ফাঁকা থাকবে না পাসপোর্টের শেষ পাতা। অর্থাৎ শেষ পাতা বহন করবে ঠিকানা। একই সঙ্গে কমলা রঙের কোনও পাসপোর্ট হবে না সেই বিষয়টিও সাফ করে দেওয়া হয়।

পাসপোর্টের জন্য তৈরি নয়া বিধিতে বলা হয়েছিল, এবার থেকে পাসপোর্টের শেষ পাতাটি খালি থাকবে। পুরনো পাসপোর্টের শেষ পাতায় পাসপোর্টধারীর মা-বাবার নাম, ঠিকানা, কবে পাসপোর্টটি ইস্যু হয়েছে-সহ বেশকিছু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেওয়া থাকত। কিন্তু জানা গিয়েছিল, পরিবর্তিত পাসপোর্টে পৃষ্ঠাটি খালি থাকবে। ফলে কারও ঠিকানার প্রমাণ হিসাবে আর পাসপোর্টকে গণ্য করা হবে না। কিন্তু সেই সিদ্ধান্তর থেকে সরে এসে এদিন বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, পাসপোর্টে বদল আনার কথা আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, সোমবার বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের নেতৃত্বে একটি বিশেষ বৈঠক হয়। সেই বৈঠকে পাসপোর্টের নিয়মাবলী বদলের প্রস্তাবটি স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিদেশমন্ত্রকের এক কর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্যের রক্ষা করতেই পাসপোর্টের শেষ পাতা ফাঁকা রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। একই সঙ্গে তাঁর বক্তব্য ছিল, বর্তমানে যেই পাসপোর্ট ব্যবহার চলছে তাঁর মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করা হয়ে যাবে। দ্রুত প্রক্রিয়াকরণের জন্য পাসপোর্টের রঙেও বদল আনার কথা ভাবনাচিন্তার স্তরে ছিল কেন্দ্রের। বর্তমানে তিন রঙের পাসপোর্ট ইস্যু করা হয়ে থাকে।

কিন্তু পাসপোর্টের রঙ বদল এবং ঠিকানা তুলে নেওয়ার ইস্যু প্রকাশ্যে আসতেই গত দুসপ্তাহে বিদেশমন্ত্রকের কাছে বিভিন্ন মহল থেকে মতামত আসতে শুরু করে। সেখানে সকলেই একবাক্যে এই দুই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আর্জি জানায়। এরপরই এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেয় বিদেশমন্ত্রক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here