ডেস্ক: আমেরিকা বা লন্ডন নয়, এবার একলাফে অ্যান্টিগুয়া পালিয়ে গেল পিএনবি কাণ্ডের অন্যতম মাথা মেহুল চোকসি। ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গিয়েছে, অ্যান্টিগুয়া পালানোর কথা স্বীকারও করে নিয়েছে সে। একই সঙ্গে এমন খবর, পাকাপাকিভাবে অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্বও গ্রহণ করে ফেলেছে চোকসি। তাঁর দাবি, অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্ব গ্রহণ করে সে কোনও ভুলই করেনি। নিজের আইনজীবী ডেভিড ডোরসেটকে এই কথা জানিয়েছে মেহুল।

বলে রাখা ভাল, নোটিশ পাওয়ার একমাস আগেই মার্কিন প্রদেশ ছেড়ে অ্যান্টিগুয়া পালিয়েছিল মেহুল চোকসি। গ্রেফতার হওয়ার ভয়েই আমেরিকা থেকে চম্পট দেয় সে। দক্ষিণ আফ্রিকার অদূরেই অবস্থিত এক দ্বীপপুঞ্জের নাম হচ্ছে অ্যান্টিগুয়া। বিলাসবহুল জীবন যাপন করার সকল বন্দোবস্তই রয়েছে সেই দ্বীপপুঞ্জে।

অন্যদিকে, মেহুলকে অ্যান্টিগুয়া থেকে আনার বিষয়ে ইতিমধ্যেই তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে ভারত। কিন্তু মেহুল গণপিটুনির ভয়ে ভারতে পা রাখতে নারাজ বলে জানিয়েছেন তাঁর আইনজীবী। যদিও অ্যান্টিগুয়ার তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, পলাতক চোকসিকে ভারত ফেরাতে সবরকম সাহায্য করবে তারা। কিন্তু মেহুল চোকসি যে ভারতে ফিরছে না, এদিন তাঁর আইনজীবীর বয়ানে কার্যত তা সাফ হয়ে গিয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here