ডেস্ক: প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকা জালিয়াতি করে পলাতক নীরব মোদী ও তার মামা মেহুল চোকসি। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি ও সিবিআই তার টিঁকি ছুঁতে না পারলেও, চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখছে না তদন্তকারী সংস্থা। তদন্ত চলছেন আর সেই তদন্তে নেমে এবার বড়সড় সাফল্য পেল ইডি। সোমবার গভীর রাতে কলকাতা থেকে গ্রেফতার করা হল মেহুল ও নীরবের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ী দীপক কুলকার্নি।

সোমবার সন্ধ্যাতেই গোপন সূত্রে ইডির কাছে খবর আসে হংকং থেকে কলকাতায় আসছেন ওই ব্যবসায়ী। খবর পেয়েই ফাঁদ পাতে তদন্তকারী সংস্থা। কলকাতা বিমান বন্দরে নামার পরই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। তদন্তকারী সূত্রে জানা গিয়েছে, হংকংয়ে মেহুল চোকসির এক ভুয়ো ফার্মের অধিকর্তা ছিলেন ওই ব্যবসায়ী। লুক আউট নোটিশও জারি ছিল তাঁর বিরুদ্ধে, তাই ভারতে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গেই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে।

উল্লেখ্য, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকা প্রতারণা করে আপাতত দেশছাড়া নীরব মোদী ও মেহুল চোকসি। আর এই দুই জনেরই অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন দীপক কুলকার্নি। তার গ্রেফতারি তদন্তকারীদের কাছে যে এক বিরাট বড় সাফল্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না। জানা যাচ্ছে, ট্রানজিট রিমান্ডে দীপককে মুম্বই নিয়ে যাওয়া হতে পারে। আপাতত দীপককে জেরা করে মেহুল ও নীরব সম্পর্কে বহু তথ্য পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here