ডেস্ক: মাত্র ১৮ বছর বয়সে মিস ওয়ার্ল্ডের বিজয়ী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বলিউডে পা রাখেন। গ্ল্যামার জগতে কেটে গেছে প্রায় ১৭ টি বছর। কোনো গডফাদারের সাহায্য ব্যতীত নিজের ক্ষমতায় নিজের পরিচয় তৈরী করেছেন পিকি চপস্। শুধু বলিউডে নয় তার খ্যাতি ছড়িয়েছে হলিউডেও। অভিনয়েই নয় প্রশংসা পেয়েছে তার গানও। আর এই সাফল্যের জন্য তিনি সবচেয়ে কৃতঞ্জ তাঁর স্বর্গীয় পিতা অশোক চোপড়ার প্রতি। ২৩ বছর বয়স পর্যন্ত প্রিয়াঙ্কার বাবা তাঁর ম্যানেজারের কাজ করে দিতেন। এভাবে তিনি বরাবর প্রিয়াঙ্কাকে আগলে আগলে রেখেছিলেন। গ্ল্যামার দুনিয়ায় পরিচয় বানানোর প্রিয়াঙ্কার স্বপ্ন যখন পরিজনবর্গের প্রশ্নের মুখে তখন একমাত্র বাবা পাশে ছিলেন প্রিয়াঙ্কার। প্রিয়াঙ্কা মনে করেন এভাবেই সকল পুরুষদের নারীদের স্বপ্ন ও আকাঙ্ক্ষা গুলো বুঝে সেগুলিকে উড়ান ভরতে উৎসাহ দেওয়া উচিত। তাঁর মতে নারীদের মধ্যে এক অসীম ক্ষমতা রয়েছে যার সাহায্যে তারা ঘর ও বাইরে উভয়দিকই সামলাতে পারেন অনন্য নৈপুন্যের সাহায্যে, যা হয়ত পুরুষরা কোনো দিনই পারবেন না। প্রিয়াঙ্কা একজন তারকা। তাঁর কথা শোনার কান আছে প্রচুর। প্রিয়াঙ্কার মতে তাঁর এ ধরনের মন্তব্য সমাজে ইতিবাচক প্রভার ফেললে তারকা হিসেবে সমাজের প্রতি ও একজন নারী হিসাবে নারীজাতির প্রতি তাঁর দায়িত্ব কিছুটা হলেও পালন হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here