kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিঘা: ২৭ সেপ্টেম্বর সারা বিশ্বজুড়েই পালিত হয় ‘বিশ্ব পর্যটন দিবস’। এই বছর তা কেবল ম্রিয়মান নয়, গোটা পর্যটনশিল্প চরম বিপর্যয়ের সম্মুখীন করোনার কারণে। গত ৬ মাস প্রায় থমকে গিয়েছে জনজীবন। বাদ যায়নি পর্যটনশিল্পও। লজ-হোটেলের মালিক থেকে কর্মী,  ট‍্যুর পরিবহণে নানা রকম যানবাহনের  মালিক-চালক-কর্মী, বিভিন্ন পর্যটক সংস্থার সঙ্গে যুক্ত অগণিত মানুষ এই ৬ মাসের অচলাবস্থায় বর্তমানে অনিশ্চিত ও অন্ধকার ভবিষ্যতের সামনে দাঁড়িয়ে।

এমন পরিস্থিতিতে পূর্ব মেদেনীপুর জেলার কোলাঘাটের ১৫ জন ভ্রমণপ্রেমী যুবক রূপনারায়ণের পাড় থেকে দিঘার সৈকত পর্যন্ত এই বিস্তীর্ণ এলাকার বিভিন্ন জনবহুল এলাকা ও বিভিন্ন সৈকতে ২৬ ও ২৭ সেপ্টেম্বর আবার ভ্রমণ শুরু করার আবেদন নিয়ে  প্রচার শুরু করেছেন। ব‍্যানার, প্ল্যাকার্ড, হ‍্যান্ড মাইক ও প্রচারপত্র বিতরণের মাধ‍্যমে পথসভা ও একাধিক সৈকত পরিক্রমায় আবেদন করছেন যে,  কোভিড ১৯-র সবরকম সুরক্ষা ও স্বাস্থ‍্যবিধি মেনে ছোট ছোট গ্রুপে কম দুরত্বের মধ‍্যে ভ্রমণসূচি শুরু হোক। এমন উদ‍্যোগ নেওয়া যুবকদের কেউ ক্ষুদ্র ব‍্যবসায়ী, কেউ বেসরকারি চাকরি করেন, কেউ গৃহশিক্ষক আবার কেউ ফটোগ্রাফি ও গ্রাফিক্সের কাজে যুক্ত। সবাই সময় সুযোগমতো প্রতি বছরই পরিচিতদের নিয়ে দলবেঁধে ভাললাগা থেকে সখেই নানা ট‍্যুর সংগঠিত করতেন, নিজেরাও সপরিবারে ঘুরতে যেতেন।

এই আয়োজনের একজন ভ্রমণপ্রেমী সুকল‍্যাণ ব‍্যানার্জী জানান, পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত অগণিত মানুষের জীবন জীবিকা আজ প্রশ্নের মুখে। খুবই শোচনীয় অবস্থা তাদের। অন‍্যদিকে, টানা ৬ মাস ঘরবন্দি দশায় ছোট থেকে বড় সব ধরনের মানুষই অবসাদে ভুগছেন। আমরা বিশ্ব পর্যটন দিবসকে সামনে রেখে দু’দিনের এই প্রচারে এই আবেদনই করছি যে, করোনা বিষয়ক সব ধরনের সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ছোট ছোট গ্রুপে আবার ভ্রমণ শুরু হোক। দ্রুত না হলেও আস্তে আস্তে পর্যটনশিল্প আবার সচল হোক। আমরা সবাই যেন আবার বেড়াতে যেতে পারি।

এই দলটি আজ সকালে কোলাঘাটে প্রচার শুরু করে মেছেদা, রাধামনি, নন্দকুমার, মন্দারমনি, শঙ্করপুর প্রচার করে দিঘা সৈকতে পৌঁছয় দুপুরে। সেখানে সারাদিন প্রচার করে। দলে রয়েছেন সুকল‍্যাণ ব‍্যানার্জী, শান্তনু সরকার, তপন মাইতি, শুভঙ্কর বসু, মন্টু আলি, রিন্টু ঘোষ, চন্দ্রশেখর দাস, সুকদেব মাদরাজি, অঞ্জন দাস, অশোক ঘোষাল, দিলীপ মাইতি, ভবেশ বৈরাগী, বিশ্বনাথ দাস, মানিক খাঁড়া ও শৈবাল দাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here