kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পার্কস্ট্রিট দুর্ঘটনার পর এবার টনক নড়ল মেট্রো কর্তৃপক্ষের। মেট্রোর সেন্সর দরজা বন্ধ হওয়ার সময় কোনও যাত্রী যদি হাত পা বা ব্যগ ঢুকিয়ে তা আটকানোর চেষ্টা করেন সেক্ষেত্রে মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানা দিতে হবে অভিযুক্ত ওই যাত্রীকে। সম্প্রতি এমনই নির্দেশিকা জারি করা হল মেট্রো কর্তৃপক্ষের তরফে।

মেট্রো স্টেশনে নিত্যযাত্রীদের কাছে চিত্রটা বেশ চোখ সওয়া। দরজা বন্ধ হওয়ার মুখে কেউ লাফিয়ে উঠছেন মেট্রোতে কিংবা হাত পা বা ব্যগ ঢুকিয়ে মেট্রোর সেন্সর দরজা খোলার চেষ্টা করছেন। কারণ, কোনওরূপ বাধা পেলেই খুলে যায় মেট্রোর সেন্সর দরজা। এই ঘটনার জেরেই সম্প্রতি পার্কস্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে দরজায় হাত আটকে দুর্ঘটনার স্বীকার হয়ে মৃত্যু হয় সজল কাঞ্জিলাল নামে এক ব্যক্তির। তাঁর মৃত্যুর পর এবার যাত্রী সুরক্ষায় আরও কড়া হল মেট্রো। কেউ যদি এখন থেকে বন্ধ হতে থাকা মেট্রোর দরজা আটকানোর চেষ্টা করেন সেক্ষেত্রে তাঁকে জরিমানা করা হবে ৫০০ টাকা। আর কেউ এই নিয়ম ভাঙছে কিনা তা দেখার জন্য স্টেশনে কড়া নজরদারি চালাবে আরপিএফ। নজরদারি চলবে স্টেশন ম্যানেজারের ঘর থেকেও।

উল্লেখ্য, সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুতে অভিযোগের আঙুল উঠেছে চেন্নাই থেকে সদ্য আনা এসি রেকের বিরুদ্ধে। অন্যান্য রেকগুলিতে দরজায় বাধা পেলে সেন্সরের মাধ্যমে ফের খুলে যায় দরজা। কাজ করে বিপদঘন্টি ও টকব্যাক। কিন্তু দুর্ঘটনার দিন কাজ করেনি সেই সমস্ত বিসয়গুলি। কিন্তু মেট্রোর তরফে জানানো হয়েছে, ১৫ মিমির উপরে কিছু আটকালে দরজার ওই সেন্সর কাজ করে তার নীচে কিছু থাকলে সেন্সর কাজ করে না। সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তির হাতের আঙুল মেট্রোর দরজায় আটকেছিল বলে দাবি মেট্রো কর্তৃপক্ষের। পাশাপাশি এই ঘটনার পর মেট্রোতে চালকের দরজার সামনে গাড়ির মতো উত্তল আয়না লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি, কলকাতা পুলিশের ফরেনসিক দল আজ পরীক্ষা করতে যাচ্ছেন নওয়াপাড়া তে রাখা রয়েছে ঐই রেখটি। দূর্ঘটনাগ্রস্ত মেট্রোর রেলের রেকটি দেখে ফরেনসিক রিপোর্ট কলকাতা পুলিশের কাছে জমা দেবে বিশেষ দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here