নীল ছবিতে পাঁচ বছর কাটিয়ে আয় মাত্র ১২,০০০, হতাশ মিয়া খালিফা

0
183

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পর্ন ইন্ডাস্ট্রি, দূর থেকে দেখে সাধারণ মানুষের মনে হয় এটা খুবই বিলাসবহুল জায়গা। যেখানে আয়ের পাশাপাশি দৈহিক সুখলাভ করা যায়। শুধুমাত্র কায়িক পরিশ্রম ও অল্পবিস্তর অভিনয় করে মোটা টাকা আয় করে যায় পর্ন ইন্ডাস্ট্রি থেকে। কিছুটা সত্যি হলেও, পুরোটা নয়। শুধুমাত্র আয়ের নিরিখেই প্রতিদিন প্রায় হাজারো ছেলে-মেয়েরা ক্যামেরার সামনে নগ্ন হচ্ছে বেশ কিছু শর্তের বিনিময়ে। তবে সবার ভাগ্যে জোটেনা সেই অর্থ। ঠিক এমনটাই দাবি করেছেন প্রাক্তন পর্ন তারকা মিয়া খালিফা।

লেবাননের এই পর্ন তারকার বাজার চলতি অর্থাৎ সোশ্যাল মিডিয়াতে বা পর্নসাইটে ডিমান্ড ছিল চোখে পড়ার মতো। কিন্তু তাঁর অভিনয়ের মাধ্যমে যথাযথ পারিশ্রমিক পেতেন না মিয়া। গতকাল টুইট করে তেমনটাই জানিয়েছেন প্রাক্তন এই পর্ন তারকা। তিনি জানিয়েছেন এত বছরের পর্ন অভিনয়ের কেরিয়ারে মাত্র ১২,০০০ ডলার আয় করেছেন তিনি আর এটাই তাঁর সেভিংস ছিল। মাত্র তিন মাস ছিলেন পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে তাতেই তাঁর জনপ্রিয়তা ছিল তুঙ্গে কিন্তু আয়ের নিরিখে ভাগ্যে জোটেনি কিছুই। তেমনটাই গতকাল টুইট করে জানিয়েছেন মিয়া। ২০১৮ পর্নহাব প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্ন অভিনেত্রী হিসাবে তাঁর নাম উঠে এসেছিল। যদিও শুধুমাত্র পারিশ্রমিকের জন্য নয় মিয়া এর আগেও জানিয়েছিলেন তিনি কেন পর্ন ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে ছিলেন।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন, ”আমি এক পর্ন সিনেমাতে হিজাব পড়ে অভিনয় করেছিলাম। নগ্ন দৃশ্যে অভিনয় করেছিলাম আমি। যার জন্য আইসিস সংগঠনের তরফ থেকে আমাকে প্রাণে মারার হুমকি আসে। আমি আমেরিকা চলে যাই, কিন্তু সেইখানেও একই সমস্যা হয়।” কার্যত এর আগেও এক সাক্ষাৎকারে মিয়া জানিয়েছিলেন তাঁর পর্ন ইন্ডাস্ট্রি ছাড়ার পিছনে কারণ আইসিস জঙ্গীদের প্রাণ নাশের হুমকি। তাঁকে বিশ্বের বেশকিছু দেশে ব্যানও করা হয়েছে। যদিও নিজের ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে তাঁর ফ্যানেদের মনোরঞ্জন করতে থাকেন মিয়া। যদিও কিছুদিন আগে আইসিসের জঙ্গীরা তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেন। আপাতত সবকিছু ছেড়ে এখন স্পোর্টস রিপোর্টার হিসাবে নিউইয়র্ক পোস্টে কাজ করেন মিয়া খালিফা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here