kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, মালদা: ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টিনে যেতে ইচ্ছুক নন পরিযায়ী শ্রমিকরা। ট্রেন স্টেশনে পৌঁছনোর আগেই চেন টেনে ট্রেন থামিয়ে নেমে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দিচ্ছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। দীর্ঘদিন ধরে মালদা শহরে এই অভিযোগ উঠছিল। আজ সেই ঘটনার কথা কার্যত স্বীকার করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি এধরনের ঘটনা রুখতে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলেও রেলওয়ে কর্তারা জানান।

স্টেশনের আগেই নেমে পরিযায়ীদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার অভিযোগ উঠছিল শহরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এধরনের ছবিও ঘুরতে দেখা যাচ্ছিল। যদিও সেই সব ছবির সত্যতা কেউ যাচাই করেনি। আজ পরিযায়ী শ্রমিকদের এই প্রবণতার কথা মেনে নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।

ডেপুটি সুপার অফ রেলওয়ে পুলিশ রিপন বল জানান, ট্রেনের চেন টেনে থামিয়ে স্টেশনের আগেই পরিযায়ী শ্রমিকদের নেমে যাওয়ার একটা ঘটনা কয়েকদিন আগে রেকর্ড হয়েছিল। এই ঘটনা জানার পরে রথবাড়িতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকরা মনে করছেন, স্টেশনে নামলে তাঁদের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। সেই ভয়েই অনেক পরিযায়ী শ্রমিকের মধ্যে ট্রেনের চেন পুলিং করে বিভিন্ন জায়গায় নেমে যাওয়ার একটা প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

দিনের পর দিন জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধিতে চিন্তিত জেলাবাসী। এরই মধ্যে এধরনের ঘটনায় দুঃশ্চিন্তা গ্রাস করছে শহরবাসীকে। জেলায় করোনা আক্রান্তের ৯৯ শতাংশ পরিযায়ী শ্রমিক। অথচ পরিযায়ীদের করোনার পরীক্ষা না করে, ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টিনে না যাওয়ার প্রবণতা না থামলে জেলায় করোনার সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here