news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনাকের রুখতে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। দীর্ঘদিন লকডাউন ব্যাপক সমস্যায় পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। খাতায়-কলমে সরকার এই সমস্ত শ্রমিকদের খাদ্য ও স্বাস্থ্য বিষয়টি যত্নসহকারে দেখছে বলে দাবি করা হলেও, সাহায্য মিলছে না বলে অভিযোগ তুলেছেন অনেকেই। এমন পরিস্থিতিতে ঘরে ফিরতে মরিয়া শ্রমিকরা। দীর্ঘ পথ পাড়ি দিচ্ছেন অনেকেই। অসাধ্য সাধন করতে গিয়ে মৃত্যুর ঘটনাও কম ঘটেনি এতদিনে। তবে উপায় নেই। তাই পা গাড়িকে সঙ্গী করেই হায়দরাবাদ থেকে ৮০০ কিলোমিটার দূরে মধ্যপ্রদেশে নিজের বাড়িতে ফিরতে পরিবার সহ রেল লাইন ধরলেন এক ব্যক্তি।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর লকডাউনের জেরে হায়দ্রাবাদে আটকে পড়েছিলেন মধ্যপ্রদেশের এক পরিযায়ী শ্রমিকের পরিবার। উপায়ন্তর না দেখে শেষমেষ ৮০০ কিলোমিটার পথ হেঁটেই পাড়ি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ওই পরিবার। তাদের সঙ্গে ছিল পাঁচ বছরের এক ছোট্ট শিশুও। টানা ৭ দিন ৪০০ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে মহারাষ্ট্রের চন্দ্রচূড় জেলায় যখন তারা পৌঁছান তখন তাদের অবস্থা রীতিমতো শোচনীয়। তবে তা মানতে নারাজ তারা ওই অবস্থাতেই ফের শুরু হয়েছে পথ চলা।

 

news bengali

জানা গেছে ঠিকাদারের সঙ্গে হায়দ্রাবাদে কাজে এসেছিল মধ্যপ্রদেশের পরিবার তবে লকডাউন এর ফলে তাদেরকে ছেড়ে চলে গেছে ওই ঠিকাদার ফলস্বরুপ হায়দরাবাদে রীতিমত সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে তাদের। বেশকিছুদিন খাবারও জোটেনি। ছোট শিশুসহ অভুক্ত থাকতে হয়েছে গোটা পরিবারকে। এহেন পরিস্থিতিতে কোনো উপায় না দেখে বাধ্য হয়েই ঘরে ফেরার সিদ্ধান্ত নেয় ওই পরিযায়ী শ্রমিকের পরিবার। বাবা-মায়ের সঙ্গে সমানতালে হেঁটে চলেছে পাঁচ বছরের ওই ছোট্ট শিশুও। রাস্তায় যেতে যেতে যেটুকু খাবার জুটছে তাই দিয়েই চলছে পেট ভরানো। রাস্তায় কখনো সাহায্য করছে পুলিশ, তো কখনো পেটের টানে হাত পাততে হচ্ছে অন্যের বাড়ির দরজায়। এভাবেই চলছে পথ চলা। তবে বাড়ি তারা ফিরবেই। এই রেললাইনই চলে গিয়েছে তার বাড়ির সামনে থেকে। অদম্য জেদকে সঙ্গী করেই পথ চলছে মধ্যপ্রদেশের এই হতভাগ্য পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here