mimi

ডেস্ক: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকে এবার লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুরের প্রার্থী হিসাবে তার নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই বিতর্কে মিমি চক্রবর্তী। তবে সে সবকে খুব বিশেষ পাত্তা মোটেও দেননি টলিকন্যা, বরং প্রচারের ময়দানে বেশ সহজ ভাবেই দাপিয়ে বেড়াতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। কিন্তু বিতর্ক তো আর পিছু ছাড়ার পাত্র নয়। সম্প্রতি, মিমির একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা গিয়েছে, ছোটদের সঙ্গে করমর্দন করছেন মিমি, তাঁর হাতে ঢাকা দস্তানাতে। মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় ছবিটি। শুরু হয় বিতর্ক, যার এদিন যোগ্য জবাব দিলেন মিমি চক্রবর্তী।

এদিন নিজের দস্তানা প্রসঙ্গে যা চলছে তার জন্য যারপরনাই অসন্তুষ্ট মিমি সাংবাদিকদের জানান, ‘এই কয়েকদিনে টানা প্রচারের জন্য বেরিয়ে ত্বকের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে। আমার ত্বক অত্যন্ত সেনসিটিভ। দুহাতের খোলা অংশে র‍্যাশ বেরিয়েছে রদ্দুরের জন্য, সেই সঙ্গে সান বার্নে কুঁচকে গিয়েছে। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে হাতে ক্রিম লাগাই আমি। এবং সেই ক্রিম লাগানো অংশটি গ্লাভসের দ্বারা ঢেকে নিই। রাস্তায় যাওয়ার পথে কয়েকজন বাচ্চাকে দেখে তাকের সঙ্গে হাত মেলাই আমি। অথচ এটা নিয়ে ঘৃণ্য প্রচার করা হচ্ছে।’ গ্লাভসের পিছনে কারণটা যে অসুস্থতা একথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মিমি বলেন, ‘কোনও কিছু না জেনে শুধুমাত্র ছবিটি তুলে ধরে কুৎসা রটিয়েছে বিজেপি।’ গোটা ঘটনার জন্য বিজেপির আইটি সেলকে দায়ি করেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার দায়িত্ব নিয়েছে ওরা। তবে এসব করে লাভ কিছু হবে না।’

উল্লেখ্য, লোকসভা প্রার্থী হিসাবে তাঁর নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকে বেশ দাপটের সঙ্গে প্রচারে নেমে পড়েছেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। বৃহস্পতিবার সোনারপুরে প্রচার ছিল তাঁর। সেখানে প্রচার সেরে ফেরার পথে রাস্তায় বেশ কিছু বাচ্চা দেখে গাড়ি থামান মিমি। তাদের আলাপ করার পাশাপাশি করেন হ্যান্ডশেক গ্লাভস পরা মিমির সেই ছবিই ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় চলতে থাকে বিতর্ক। এদিন অবশ্য তার যোগ্য জবাব দিলেন মিমি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here