ডেস্ক: দুদিন আগেই মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মিমোর বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ এনেছিলেন এক মহিলা। কার্যত তিনি থানায় অভিযোগও দায়ের করেছিলেন মিমোর বিরুদ্ধে। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে মিমো জানিয়েছিলেন যে এতদিন পরে অভিযোগের কী আছে। অপরদিকে মিমোর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তাঁর হবু শ্বাশুড়ি। কিন্তু এদিন অভিযুক্তের আইনজীবি রবি সোনি জানিয়েছেন যে মিমো নাকি ওই মহিলার পানীয়তে মাদক মিশিয়ে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ধর্ষন করেছিলেন। ইতিমধ্যেই এই মামলায় মিমোর বিরুদ্ধে এফআইআর করার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।

পাশাপাশি মিমোর মায়ের নামেও অভিযোগ দায়ের করেছিল ওই মহিলা আদালতের নির্দেশে। কিন্তু এইসব চলাকালীন অভিযুক্তের আইনজীবি জানিয়েছেন যে ”দীর্ঘ চার বছরের সম্পর্ক ছিল মিমো ও ওই মহিলার মধ্যে। এরই মধ্যে বিয়ে করার প্রস্তাব দিয়ে সহবাস করেছিলেন মিমো” এমনটাই জানিয়েছেন ওই আইনজীবি। এদিকে আগামী ৭ তারিখ ওই মহিলা অর্থাৎ অভিনেত্রীর সঙ্গে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল মিমোর। কিন্তু এই মুহূর্তে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন বলে জানা গিয়েছে। তবে এই বিষয়ে মুখ খোলেননি মিমো। তাঁর আইনজীবির তরফ থেকেও কিছুই জানানো হয়নি। এই বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন তাঁর বাবা মিঠুন চক্রবর্তীও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here