kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: সদ্য মাধ্যমিক পাশ নাবালিকাকে গণধর্ষণের পর খুনের ঘটনায় উত্তাল  উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া। একাধিক সরকারি বাস ও গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়ে ক্ষিপ্ত এলাকাবাসী। চোপড়ার সেই ধর্ষণকাণ্ড নিয়েই মুখ খুললেন বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি বলেছেন, ‘অভিযুক্তের ফাঁসি চাই, না হলে এর শেষ দেখে ছাড়ব। ফেসবুকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে বিজেপি মহিলা মোর্চা নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল আরও বলেন, ‘গোটা রাজ্যে মহিলাদের ওপর এত অন্যায়-অত্যাচার হচ্ছে। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মহিলা হয়ে কোনও কথাই বলছেন না এ বিষয়ে। আমার প্রশ্ন, উনি কি এই বাবুসোনাদের প্রটেক্ট করছেন। রাজ্যে তো কোনও শিল্প আনতেই পারেননি উনি। তা হলে ধর্ষণকে শিল্প হিসাবে দেখাতে চাইছেন?’

বিজেপি এই ঘটনা নিয়ে হইচই করায় এবার আসরে নামল শাসকদল তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে চোপড়ায় নিহত নাবালিকার বাড়িতে আগামীকাল যাচ্ছেন মন্ত্রী গৌতম দেব-সহ রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী-সাংসদ। রবিবার পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব তার বাড়িতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছেন, উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ার ঘটনা নিয়ে বিজেপি রাজনীতি করছে। মৃত কিশোরীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সমস্ত রিপোর্ট মুখ্যমন্ত্রীকে জানানো হবে। আর তাই আগামীকাল মৃত কিশোরীর পরিবারের লোকেদের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছি আমরা। প্রতিনিধি দলে থাকবেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব, প্রতিমন্ত্রী গোলাম রব্বানি, সাংসদ মৌসম বেনজির নুর, কানাইয়ালাল আগারওয়াল-সহ অন্যান্য জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।এদিন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, এই ঘটনায় প্রকৃত দোষীরা আইন অনুযায়ী উপযুক্ত শাস্তি পাবে। মুখ্যমন্ত্রী এই বিষয়ে অত্যন্ত সংবেদনশীল।‘

উল্লেখ্য, সদ্য মাধ্যমিক পাশ এক পড়ুয়াকে গণধর্ষণের পর খুনের ঘটনায় দফায় দফায় উত্তাল হল চোপড়া। জ্বলল একের পর এক সরকারি বাস ও অন্যান্য গাড়ি। পুলিশের ওপর হামলা চালাল উত্তেজিত জনতা। চলল লাঠিচার্জ। ছোড়া হল কাঁদানে গ্যাসও। উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার চতুরাগছ এলাকার এই ঘটনায় অগ্নিগর্ভ কালাগছ-সহ চোপড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা। সদ্য মাধ্যমিক পাশ করা ওই পড়ুয়াকে অপহরণের পর তাকে প্রথমে গণধর্ষণ এবং পরে খুন করে ফেলে দিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনার প্রতিবাদে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে এলাকা। ঘটনার প্রতিবাদে প্রথমে রাজ্য সড়ক ও পরে জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন এলাকার বাসিন্দার। পুলিশকে লক্ষ্য করে উত্তেজিত জনতা মুহুর্মুহু পাথরবৃষ্টি করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করার পাশাপাশি চালায় কাঁদানে গ্যাসও। উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার চতুরাগছ এলাকার এই ঘটনায় অগ্নিগর্ভ কালাগছ-সহ চোপড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here