kashmir

নগর ডেস্ক: রবিবার কাশ্মীর জঙ্গি অভিযানে বড় সাফল্য পেলেন নিরাপত্তা আধিকারিকরা। শনিবার সন্ধের পর  থেকে সেই অভিযান শুরু হয়েছে। ঘটনায় পাঁচ জঙ্গি নিকেশ হয়েছে। দুই নিরাপত্তা আধিকারিক ঘটনায় আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

গত সপ্তাহ থেকে এক কিশোর নিখোঁজ ছিলেন। স্থানীয়রা মনে করেছিলেন, ওই কিশোর কোনও জঙ্গি দলে নাম লিখিয়েছিলেন। শোপিয়ানের হাদিপোড়া গ্রামে নিরাপত্তা কর্মীদের অভিযানে ওই কিশোর নিহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, অভিযানের সময় ওই কিশোরকে আত্মসর্পনের সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ওই কিশোরের সঙ্গীরা তাকে আত্মসমর্পন করতে দেয়নি বলে কাশ্মীরের পুলিশের তরফে মনে করা হচ্ছে। কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার বলেন, এনকাউন্টার সাইটে ওই কিশোরের বাবা-মাকে নিয়ে আসা হয়। কিশোরের বাবা-মাও তাকে আত্মসমর্পন করতে বলেন। কিন্তু সঙ্গীদের জন্য ওই কিশোর আত্মসমর্পন করতে পারেনি বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পাওয়ার পরে শোপিয়ান হাদিপোড়া গ্রামে অভিযান চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। সেনাবাহিনী, কাশ্মীর পুলিশের পাশাপাশি সিআরপিএফের জওয়ানরা এই অভিযানে অংশগ্রহণ করেছিলেন। অভিযানের পর জঙ্গিদের কাছ থেকে একটি রাইফেল ও একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে। কাশ্মীর পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ওই কিশোরের কাছে কোনও অস্ত্র ছিল না। তার দুই সঙ্গীর কাছে একটি পিস্তল ও একটি রাইফেল ছিল। ওই কিশোরের দেহ শেষকৃত্যের জন্য নিরাপত্তার প্রটোকল মেনে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে না কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here