ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চেয়েছিলেন প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বেসরকারিকরণের দরজা খুলে দেওয়া হোক ৷ তাঁর ইচ্ছেকে প্রাধান্য দিয়েই এবার অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল নাগের গুরুত্বপূর্ণ প্রযুক্তি বেসরকারি শিল্পের হাতে তুলে দিতে রীতিমতো প্রস্তুত প্রতিরক্ষামন্ত্রক৷ ইতিমধ্যেই ডিআরডিও নাগ ও নাগ মিসাইল বহনকারী নামিকার প্রযুক্তি হস্তান্তর সংক্রান্ত প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে ৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডিআরডিও-র এক কর্তা জানিয়েছেন, তাঁরা প্রযুক্তি হস্তান্তরের কাজ শুরু করে দিয়েছেন৷ ভাবনাচিন্তাও চলছে জোরকদমে ৷ ডিআরডিও বিষয়টি নিয়ে কাজও শুরু করে দিয়েছে ৷ এ ব্যাপারে সাফল্য কতটা হবে, তা আগামীদিনই বলবে৷

 

নাগ মিসাইলের পাল্লা চার কিলোমিটারের৷ এটি সমস্ত পরিস্থিতিতেই বিপক্ষ নিশানায় আঘাত হানতে সক্ষম৷ এটি ফায়ার অ্যান্ড ফরগেট অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গ্রাউন্ড মিসাইল৷ নামিকায় রয়েছে রেট্রাক্টেবল আর্মার্ড লঞ্চার৷ সঙ্গে রয়েছে টার্গেট লকিংয়ের জন্য থার্মাল ইমেজার৷ বেসরকারি শিল্পসংস্থাগুলির এধরনের পুরোপুরি মিসাইল সিস্টেম তৈরি করার মতো ক্ষমতা রয়েছে কিনা, সে ব্যাপারে ডিআরডিওর বক্তব্য, ভারতের বেসরকারি শিল্পসংস্থাগুলি এখনও তাদের পুরো ক্ষমতা প্রদর্শন করতে পারেনি৷ তবে অনেক প্রস্তাব এসেছে, এবার সেগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ এ ব্যাপারে বাবা কল্যাণী গোষ্ঠী, মাহিন্দ্রা, রিলায়েন্স ও এল অ্যান্ড টি প্রতিরক্ষামন্ত্রকের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে৷ তবে এখনও পর্যন্ত ব্যাপারটা খুব বেশ দূর এগোয়নি৷