Women use mobile application software on smartphone phone .

মহানগর ডেস্ক: মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে মহিলারা ধর্ষিত হচ্ছেন। ধর্ষণ রুখতে মেয়েদের মোবাইল ফোন দেওয়া উচিত নয়। ধর্ষণ নিয়ে এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের মহিলা কমিশনের সদস্য মিনা কুমারী। তাঁর এহেন বক্তব্যে রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

বুধবার আলিগড়ে মহিলা কমিশনের সদস্য মিনা কুমারী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘মেয়েদের মোবাইল দেওয়া উচিত নয়। হাতে মোবাইল পেলে অচেনা-অজানা ছেলেদের সঙ্গে ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলে তারা। বাড়ির লোক ফোন পরীক্ষা করে না। কাজেই তাঁরা জানতেও পারে না মেয়েরা কাদের সঙ্গে মেলামেশা করছে। তারপরই মেয়েরা কাউকে কিছু না জানিয়ে অচেনা ছেলেদের সঙ্গে পালিয়ে যায়। পরে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়’। পাশাপাশি এই বিষয়ে তিনি বলেন কোন মেয়ে বিগড়ে গেলে তার সম্পূর্ণ দায় তার মায়ের। তাই মেয়েদের বড় করার ক্ষেত্রে মায়েদের আরও যত্নবান হাওয়া প্রয়োজন। এর পরেই তাঁর এই বক্তব্য নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

তবে, মিনা কুমারী মোবাইল কেন ধর্ষণ বাড়াচ্ছে তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন,’বিভিন্ন জেলায় মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের ২০ টি খবর পেলে তার মধ্যে দেখা যায় ৫ কিংবা ৬ টি অপরাধের জন্যই মোবাইল ফোন। অচেনাদের বন্ধুত্বে পা দিয়ে পালিয়ে গিয়েছে মেয়েরা। পরে নির্যাতিত হয়েছে।আসলে এখনও গ্রামের মেয়েরা মোবাইল ফোন সঠিক ব্যবহার করতে জানেনা।’ তবে, মিনা কুমারীর এহেন মন্তব্যকে সমর্থন করেনি যোগীরাজ্যের মহিলা কমিশনের বাকি সদস্যরা। এই কমিশনের সভাপতি অঞ্জু চৌধুরী এই বিষয়ে বলেছেন, ‘মহিলাদের ওপর অপরাধ কমাতে মোবাইল ব্যবহার করতে দেওয়া যাবে না এই ধরনের কথা বলা ঠিক নয়। বরং তারা যাতে মোবাইল এর সঠিক ব্যবহার করে। কোন অচেনা মানুষের সঙ্গে বন্ধুক্ত না করে সেই বিষয়ে নজর রাখতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here