ডেস্ক: জোটসঙ্গী হয়েও এবার বিজেপিকে বিঁধলেন লোক জনশক্তি নেতা রামবিলাস পাসোয়ান। বিজেপিকে পরোক্ষে সাম্প্রদায়িক দলের আখ্যা দিয়ে ভোট কমার কারণ তুলে ধরলেন তিনি। পাসোয়ানের মতে, মুসলিম বিরোধিতা এবং নিচু শ্রেণির মানুষদের বিরোধী মনোভাব পোষণ করার জন্যই ২০১৯ সালে ভোটবাক্সে টান পড়তে পারে বিজেপির।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পাসোয়ান অবশ্য ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে মোদীর জয়ের বিষয়ে যথেষ্ট আশাবাদী। কিন্তু তাঁর মত, এই জন্য বিজেপির মনোভাব পরিবর্তন করার দরকার। কারণ, দেশজুড়ে বিজেপির ভাবমূর্তি হিন্দু এবং উচ্চ হিন্দুদের মনোভাবকেই অগ্রাধিকার দেন বলে মনে করছেন পাসোয়ান। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সরকার যাই করুক না কেন সকলের জন্যই করে। এমনকি নিচু স্তরের মানুষের জন্যও অনেক কিছু করেছে বিজেপি। কিন্তু এসব কিছু সত্ত্বেও সমাজের নিচু শ্রেণির মানুষের মধ্যে বিজেপি সম্পর্কে ধারণার বদল আসছে না।’

পাসোয়ানের মতে বিজেপির এই দুর্বলতার সুযোগ সহজে নিতে পারে বিরোধীরা। জোটসঙ্গী পাসোয়ানের এই মন্তব্যকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে রাজনৈতিক মহল। একদিকে যখন জোটসঙ্গীরা বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করতে উঠেপড়ে লেগেছে, তখন অবশ্য পাসোয়ান আশ্বস্ত করেছেন জোটে থাকার ব্যাপারে। তিনি বলেন, এখন কেন্দ্রীয় সরকার সম্পূর্ণভাবে বিজেপি সরকার। বিজেপি-র সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। তারপরেও আমাদের মতো জোটসঙ্গীদের জায়গা দিয়েছেন মোদী। আমি এনডিএ ছাড়ার কথা ভাবছি না।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here