ডেস্ক: ‘চিত্ত যেথা ভয়শূন্য’। শুক্রবার শোনা গেল প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি চিদাম্বরমের গলায়৷ তাঁর স্পষ্ট কথা, মোদী গত পাঁচ বছরে ভয়ের রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেছেন৷ পাশপাশি তাঁর আবেদন, এবার লোকসভা ভোটে ভোটারদের ভয়শূন্য চিত্তে ভোট দিতে হবে৷

প্রধানমন্ত্রী মুখে যতই ‘অচ্ছে দিন’-এর কথা বলুন না কেন, দেশের মানুষ মোদীর রাজত্বে একেবারে ভাল নেই বলে মনে করেন বর্ষীয়ান কংগ্রস নেতা পি চিদাম্বরম৷ এবার তিনি লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়াননি৷ পরিবর্তে তাঁর ছেলে কার্তিকে প্রার্থী করেছেন৷

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর দাবি, দেশের মানুষকে নিরাপত্তা দিতে চরম ব্যর্থ হয়েছিল কংগ্রেস সরকার৷ একমাত্র মোদী দেশকে নিরাপদে রাখতে পেরেছেন৷ এই মন্তব্যর তীব্র বিরোধতা করলেন চিদাম্বরম৷ তাঁর কথায়, ১৯৪৭, ১৯৬৫, ও ১৯৭১ সালে দেশকে নিরাপত্তা দিয়েছিল কে? কার পাকিস্তানকে হারিয়েছিল কে? কারা বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছিল? কংগ্রেসের অবদান দেশে সবচেয়ে বেশি বলে দাবি করেন তিনি৷

মোদীর অচ্ছে দিনে দেশের কবি, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবি থেকে শুরু করে দলিত, মহিলা, সংখ্যালঘুরা কি ভাল আছে? তাদের ওপর অত্যাচার কি কমছে? কমছে না৷ তা হেল কীসের সুদিন? প্রশ্ন চিদাম্বরমের৷ মোদীর তুলনায় মনমোহনের আমল অনেক ভাল ছিল৷ আর যা হোক, এখনকার মতো এত অসহিষ্ণুতা ছিল না৷ মোদীর দাপটে দেশের মানুষের মনে অনেকগুণ আতঙ্ক বেড়েছে বলে মনে করেন চিদাম্বরম৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here