narendra modi at brigade

নিজস্ব প্রতিনিধি: বক্তব্য রাখতে গিয়ে বার বার ব্রিগেডে উপস্থিত কর্মী সমর্থকদের আবেগ উসকে দেওয়ার চেষ্টা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ব্রিগেডে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কোনওদিন এতবড় সভা দেখেনি। ময়দানে আর জায়গা নেই। রাস্তাতেও ভর্তি লোক। তাঁর আর ময়দানে পৌঁছতে পারবেন কি না সন্দেহ।’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সকলকে প্রণাম জানিয়ে নিজের বক্তব্য শুরু করেন।

ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবসের একদিন আগে আমি বাংলায় ব্রিগেডে সভা করছি। আমি বাংলার মাটিকে প্রণাম করি।’ তিনি রাণি রাসমনি, মাতঙ্গিনী হাজরা সহ বিভিন্ন মহিয়ষী নারীদের প্রসঙ্গ তুলে আনেন।’ তিনি বলেন, গত ১০ বছরে বাংলায় কোনও উন্নতি হয়নি। কেন্দ্রীয় সরকার বাংলার উন্নতির জন্য অনেক অর্থ বরাদ্দ করেছে। কিন্তু রাজ্যের তৃণমূল সরকার সেগুলো খরচ করেনি। এই সরকার না নিজে কিছু করবে, না কাউকে রাজ্যের উন্নতি করতে দেবে বলে তৃণমূল সরকারকে তোপ দাগেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি মমতাকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘বাংলার মানুষ আপনাকে দিদি হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন। কিন্তু আপনি নিজের ভাইপোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ রইলেন।’

তিনি বলেন, ‘বাংলার মানুষের কাছ থেকে কেউ তাঁদের অধিকার ছিনিয়ে নিতে পারবেন না। বাংলার মানুষ তাঁদের সমস্ত অধিকার ফিরে পাবেন।’ তিনি বলেন, বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এলে আগামী পাঁচ বছরে যে উন্নতি হবে, তাতে আগামী ২৫ বছরের ভিত তৈরি হবে। এখানে মোট্রোর কাজ আরও দ্রুত গতিতে হবে। অসমাপ্ত উড়ালপুল সম্পূর্ণ হবে। কৃষির সঙ্গে শিল্পের উন্নতি হবে। কলকাতার কাছে সমৃদ্ধশীল অতীত রয়েছে। কলকাতার কাছে সমৃদ্ধশীল ভবিষ্যত তৈরি হবে। বিজেপি রাজ্যে সরকারে এলে গরিবের ছেয়ে মেয়েও ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার হতে পারবে, এই ব্যবস্থা করা হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here