ডেস্ক: লোকসভা ভোটের মুখে ফের ‘হিন্দুত্ব’ অস্ত্রে শান নমোর। চিরাচরিতভাবে নিশানায় সেই কংগ্রেস। মহারাষ্ট্রের ওয়ার্ধায় নির্বাচনী জনসভায় হিন্দু আবেগকে ফের একবার উস্কে দিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে কংগ্রেসের ওপর অভিযোগ তুললেন, হিন্দু সন্ত্রাসবাদ তত্ত্ব তুলে দেশের কোটি কোটি মানুষের উপর জঙ্গি তকমা লাগিয়েছিল কংগ্রেস। প্রসঙ্গত, সমঝোতা এক্সপ্রেস বিস্ফোরণের ঘটনায় কংগ্রেসের তরফে হিন্দু সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ তুলেছিলেন কংগ্রেস নেতা সুশীল কুমার শিণ্ডে। সেই ঘটনার প্রসঙ্গ টেনেই প্রধান বিরোধীদের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মোদী।

জনগণের উদ্দেশ্যে মোদী বলেন, ‘কখনও শুনেছেন কোনও হিন্দু সন্ত্রাসবাদের মতো কাজের সঙ্গে যুক্ত? হিন্দু সন্ত্রাসবাদ নামে কিছুই হয় না। হিন্দুরা শান্তিপ্রিয় হয়। ১০০০ বছরের ইতিহাসে হিন্দু সন্ত্রাসবাদের কোনও উদাহরণ দেখাতে পারবেন? কংগ্রেস এই দেশের কোটি কোটি মানুষের উপর সন্ত্রাসবাদী তকমা লাগিয়ে দিয়েছিল, হিন্দু সন্ত্রাসবাদ তত্ত্ব তুলে। হিন্দুদের অপমান করেছে কংগ্রেস। তাই আসন্ন নির্বাচনে মানুষ তাদের শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যেখানে হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে সেই কেন্দ্র থেকে ওই দলের নেতারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ভয় পাচ্ছে।’

উল্লেখ্য, সমঝোতা এক্সপ্রেস বিস্ফোরণের ঘটনায় দিনকয়েক আগেই প্রমাণের অভাবে এই মামলায় অভিযুক্তদের খালাস করে দিয়েছে। তারপর থেকেই কংগ্রেস নেতার সেই হিন্দু সন্ত্রাসবাদ তত্ত্বকে সরাসরি কাঠগড়ায় তুলছে বিজেপি। অন্যদিকে উত্তর প্রদেশের আমেঠির পাশাপাশি কেরলের ওয়েনাড় থেকেও লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন রাহুল গান্ধী। মোদী মনে করছেন, আমেঠিতে হিন্দু ভোটাররা ভোট দেবেন না এই ভয়ে কংগ্রেস সভাপতি সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় প্রার্থী হয়েছেন। রাহুল গান্ধীর সমালোচনা করে এই ভাষাতেই আক্রমণ করেন মোদী।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here