kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: যেখানে প্রায় এক সপ্তাহ পর মাঠে নামতে চলেছে তরতাজা ইস্টবেঙ্গল, সেখানে মাত্র দুই দিনের বিশ্রামের পর ফের একটা হাইভোল্টেজ ম্যাচ খেলতে নামতে হচ্ছে মহামেডানকে। ১৯৮১ সালের পর ফের একবার লিগ জয়ের হাতছানি সাদা-কালো ব্রিগেডের সামনে। কিন্তু ক্লান্তি কোথাও অন্তরায় হয়ে দাঁড়াবে না তো? সেই নিয়ে ভাবতে নারাজ টিডি দীপেন্দু বিশ্বাস। বরং সোমবার যে ছন্দে শেষ করেছিলেন, সেই ছন্দেই আজ ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে চান সাদা-কালো টিডি।

এই মুহূর্তে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগের শীর্ষে আছে মহামেডান। তবে আজই লিগে তাঁদের শেষ ম্যাচ। এটা কার্যত ফাইনাল তাঁদের কাছে। কারণ পয়েন্ট খোয়ালেই খেতাবের আশা শেষ। আর তিন পয়েন্ট পেলেই লিগ জয়ের সুবর্ণ সুযোগ। সেক্ষেত্রে অবশ্য পিয়ারলেসের পয়েন্ট নষ্টের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। ম্যাচের আগের দিন অবশ্য অনুশীলনে খুব একটা জোর দেয়নি মহামেডান থিঙ্ক ট্যাঙ্ক। বরং হালকা ট্রেনিং করেই ফুটবলারদের বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। তবে ফুটবলারদের মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখতে পেপ টক ও ইনসেন্টিভের টোপ দেওয়া হয়েছে।

এই ম্যাচটা যে খুব একটা সহজ হবে না জানেন পোড় খাওয়া প্রাক্তন ফুটবলার দীপেন্দু বিশ্বাস। ম্যাচের আগে বরং বিপক্ষ কোচ ও দল নিয়েই সমীহই ধরা পরল তাঁর গলায়।

‘ইস্টবেঙ্গল অবশ্যই যথেষ্ট বড় দল। আলেহান্দ্রো এক সময়ে মাদ্রিদে ট্রেনিং করিয়েছেন। ফলে সম্মান না করে কোনও উপায় নেই। অনেক বড় কোচ। টেকনিক্যালিও বেশ ভাল দল। ফলে গোটা দলের প্রতিই আমার সম্মান আছে। কিন্তু আমরাও তৈরি। আমরাও কিছু প্ল্যান অবশ্যই করেছি। দেখা যাক সেগুলো ঠিকঠাক ম্যাচে প্রতিফলিত হয় কিনা’, বলেন দীপেন্দু।

খাতায় কলমে ইস্টবেঙ্গলের থেকে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও নিজের দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী এই বাঙালি ফুটবলার।

‘আমরা শেষ কামড়টা দিতে তৈরি। এটা আমাদের ফাইনাল ম্যাচ লিগের। ভুলের কোনও জায়গা নেই। আমার দল দারুণ ছন্দে আছে। আমি ছেলেদের বলেছি ফোকাস নষ্ট না হতে দিতে। ফলে আমরা সমানে সমানেই লড়ব’, বলেন দীপেন্দু বিশ্বাস।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here