ডাম্পারের ধাক্কায় মা-মেয়ের মৃত্যু ঘিরে উত্তপ্ত পুরুলিয়া, গাড়িতে আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ জনতার

0
141

নিজস্ব প্রতিবেদক, পুরুলিয়া: ডাম্পারের চাকায় পিষ্ট হয়ে মা ও সাত বছরের শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় রবিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর। উত্তেজিত জনতা ওই ডাম্পারে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি রাস্তা ঘিরে ধরে বিক্ষোভও দেখায়। তারপর লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ওই মা ও মেয়ে পশ্চিম বর্ধমানের বাসিন্দা। তারা রঘুনাথপুরের নন্দুয়ারায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। রঘুনাথপুর এলাকায় দ্রুতগতিতে আসা একটি ডাম্পার তাদের ধাক্কা মারে। মা ও মেয়ে রাস্তায় পড়ে গেলে ডাম্পারটি তাদের পিষে দিয়ে চলে যায়। যদিও খুব বেশিদূর যেতে পারেনি। ঘটনাস্থলে উপস্থিত এলাকাবাসী ডাম্পারটিকে ধরে ফেলে। ততক্ষণে অবশ্য মা ও মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ জনতা ডাম্পারটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। কয়েক মিনিটের মধ্যেই সেই আগুন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, আগুন নেভাতে দমকল ডাকতে হয়। তারপর দমকল বাহিনীর বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তারপরেও শান্ত হয়নি এলাকাবাসী। যান নিয়ন্ত্রণ এবং ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েনের দাবিতে তারা পুরুলিয়া-বাঁকুড়া রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভও দেখায়।

দিনের ব্যস্ত সময়ে পুরুলিয়া-বাঁকুড়া রাস্তা অবরুদ্ধ হয়ে যাওয়ায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। রঘুনাথপুর পুলিশ অবরোধ তুলতে গেলে তাদের ঘিরেও বিক্ষোভ দেখায় উত্তেজিত জনতা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান রঘুনাথপুর মহকুমাশাসক। কিন্তু তাঁর আশ্বাসেও বিক্ষোভ, অবরোধ তোলেনি জনতা। এরপর রগুনাথপুর, আদ্রাপাড়া সহ পার্শ্ববর্তী থানাগুলির আধিকারিক সহ বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছয় এবং অবরোধকারীদের হটাতে লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ। তারপরই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি। ঘাতক ডাম্পারটির চালকও পলাতক। তার খোঁজ শুরু হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here