kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হুগলি: ইলেকট্রিক পোস্টে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যাওয়ার সময় মা ও ছেলেকে পিষে দিল একটি দুধের গাড়ি। তার পর কিছুটা দূরে গিয়ে আরও কয়েকজনকে ধাক্কা মারে বলে অভিযোগ। পরে কিছু দূরে গাড়িটিকে ধরে ফেলে স্থানীয়রা। উত্তেজিত জনতা গাড়ির ড্রাইভারকে মারধর করে বলে অভিযোগ। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দুর্ঘটনাটি ঘটে হুগলির ধনিয়াখালি থানার ১৭ নম্বর রোডের বেলমুড়ি এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,  শুক্রবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ ধনিয়াখালি থানার বেলমুড়ি গোলাবাড়ি এলাকায় ইলেকট্রিক পোস্টে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সজোরে ধাক্কা মারে একটি দুধের গাড়ি। সঙ্গে সঙ্গে এলাকা বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে। ভয়ে গাড়ি নিয়ে দ্রুত গতিতে ধনিয়াখালির দিকে যাওয়ার সময় বেলমুড়ি এলাকায় আরও তিনজনকে ধাক্কা মারে। মা ও ছেলে বাজার করে ফেরার পথে বাড়ির সামনে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়েছিলেন। সেই সময় মা ও ছেলেকে পিষে দেয় দুধের গাড়িটি। ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান দু’জনে। অপর একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃত মায়ের নাম কল্পনা বাউল দাস(৫৯) এবং ছেলে বাপন বাউল দাস (২৪)। কিছুটা দূরে গিয়ে গাড়িটি আর একজনকে ধাক্কা মারে। সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার পথে কিছুটা দূরে গাড়িটিকে ধরে ফেলে স্থানীয়রা। ড্রাইভারকে মারধরকে উত্তেজিত জনতা। ধনিয়াখালি থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মৃতদেহদুটি উদ্ধার করে নিয়ে যায় পুলিশ। এবং গাড়ির চালককে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ধনিয়াখালি গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি ক্রা হয়। দুধের গাড়িটিকে আটক করে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here