ডেস্ক: বরাবরই তিনি ‘ক্যাপ্টেন কুল’। সুদীর্ঘ ক্রিকেট কেরিয়ারে নিজের ভাবমূর্তিতে কালি পরতে দেননি কখনই। যথা সম্ভব বিতর্ক থেকেও দূরে রেখেছিলেন নিজেকে। ২০১৩ সালে আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে গোটা দেশ তোলপাড় হয়ে গেলেও চুপ ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। সেই বিতর্কে দুই বছরের জন্য নির্বাসিতও করা হয়েছিল চেন্নাই সুপার কিংসকে। গত বছর আইপিএলে কামব্যাক করেই ধোনির নেতৃত্বে তৃতীয়বারের জন্য খেতাব জেতে চেন্নাই। ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে লেখা হয় এক সোনালি রূপকথা।

ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম কলঙ্কিত অধ্যায় ছিল ২০১৩ সালের আইপিএল ফিক্সিং। বেআইনি বেটিংয়ে যুক্ত থাকার অভিযোগ ছিল চেন্নাই ও রাজস্থান দলের কর্তা গুরুনাথ মায়াপ্পন ও রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে। যার জেরে দুই বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালস ও চেন্নাই সুপার কিংসকে।

 

এতদিন সেই আইপিএল বিতর্ক নিয়ে কখনই মুখ খোলেননি মাহি। একটি অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে স্ট্রিমিং হওয়া এক তথ্যচিত্রে সেই অভিশপ্ত অধ্যায় নিয়েই মুখ খুলেছেন এমএসডি। সেখানে তিনি বলেন, ‘আইপিএল ফিক্সিং কাণ্ডে সিএসকে দলের ক্রিকেটারদের কী দোষ ছিল? আমাদের ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফ থেকে কিছু ভুল অবশ্যই ছিল। কিন্তু আমার দলের ক্রিকেটাররা তো কেউ কোনও দোষ করেনি। তাও কেন আমাদের এত কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হল?’

সেই সময় ধোনির বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েও যথেষ্ট প্রশ্ন উঠেছিল। অনেকেই মনে করেছিলেন, সেই ফিক্সিং কাণ্ডে মাহিও জড়িত আছেন। ‘লোকে ভাবত আমিও ফিক্সিং করেছি। খুব অসহনীয় ছিল সেই সময়টা’, বলেন মাহি। তিনি আরও যোগ করেন, ‘স্পট ফিক্সিং একজন প্লেয়ার করতে পারে। কিন্তু ম্যাচ ফিক্সিং একা কেউ করতে পারে না। আর আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, আমার দলের কেউ সেই কাজে যুক্ত ছিল না।’ তবে সেই সময় চেন্নাই দলের সঙ্গে যে ওতপ্রোতভাবে মায়াপ্পন জড়িত ছিলেন, তা স্বীকার করে নেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here