Home Featured বোলপুর হত্যা কাণ্ডে নয়া মোড়-খুনের চার্জ শিটে নাম উঠল মুকুল রায়ের

বোলপুর হত্যা কাণ্ডে নয়া মোড়-খুনের চার্জ শিটে নাম উঠল মুকুল রায়ের

0
বোলপুর হত্যা কাণ্ডে নয়া মোড়-খুনের চার্জ শিটে নাম উঠল মুকুল রায়ের
Parul

নিজেস্ব প্রতিনিধি: এবার খুনের চার্জ শিটে নাম উঠল বিজেপির অন্যতম নেতা মুকুল রায়ের। এই চার্জ শিট জমা দিয়েছে বোলপুর পুলিশ। মুকুল রায়ের সঙ্গেই এই চার্জশিটে নাম জুড়েছে বোলপুরের তৎকালীন বিধায়ক মনিরুল ইসলামের। এই দুই নেতার নাম জড়িয়ে এই ঘটনা নিঃসন্দেহে অন্য মোড় নেয়। অন্যদিকে এই দুই নেতার নাম জড়াতেই শুরু হয়ে যায় রাজনৈতিক কাদা ছোঁড়াছুড়ি। এই ঘটনাকে সম্পূর্ণ তৃণমূলের কারসাজি বলেই দাবি করেন বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। যদিও এই অভিযোগকে অস্বীকার করে তৃণমূল।

২০১৪ সালে ৪ জুন খুন হয় তিন জন সিপিএম কর্মী। এই তিনজনেই ছিল সম্পর্কে ভাই। তরুক শেখ, ধানু শেখ ও কুটুন শেখকে নৃশংস ভাবে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছিল মনিরুল ইসলামের অনুগামীদের বিরুদ্ধে।এই খুনের চার্জশিটে ৫২ জনের নামে জমা দিয়েছিল পুলিশ। পরে মৃত ভাইয়ের দাদা এই মামলা তুলে নিলেও ফের মামলা করেছিল মৃতদের মা। সেই মামলা গড়ায় হাইকোর্টে। তিনমাসের মধ্যে সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট। তারপরেই এই নতুন চার্জশিটে নাম ওঠে মুকুল রায়ের। যদিও মুকুল রায়ের এই খুনের ঘটনার সঙ্গে কি যোগ আছে তা স্পষ্ট হয়নি।

অন্যদিকে এই ঘটনার পরেই শুরু হয় যায় রাজনৈতিক চাপানউত্তর। এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে মুকুল রায় বলেন, তৃণমূলরা তাঁকে ভয় পাচ্ছে। তাই মিথ্যে কেস দিয়ে কোণঠাসা করতে চাইছে। যদিও এসব করে কোনও লাভ হবে না বলেই এদিন উচ্ছাশা প্রকাশ করেন তিনি । বীরভূমের বিজেপি নেতাদেড় কথায়, যতদিন মুকুল রায় , মনিরুল ইসলাম তৃণমূল করতেন, ততদিন তাঁরা ছিলেন ভাল। এখন যে কোনও কেসেই নাম জড়িয়ে দেওয়া তাদের উদ্দেশ্য। এর আগেও মুকুল রায় সোহো সদ্য শাসক দল ছেড়ে বিজেপিতে আসাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা করা হয়েছে। এখনও রেলপ্রতারণা মামলায় জামিনে রয়েছেন তিনি। এবার নতুন যুক্ত হল লাভপুর হত্যা মামলা। তবে এসবই যে মিথ্যে তা মানুষ বুঝতে পেরেছে। যদিও তৃণমূলের বিরুদ্ধে ওঠা এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূলের শীর্ষনেতারা। তাঁদের কথায়, মুকুল রায়কে ভয় পাওয়ার কোনো কারণই নেই তৃণমূলের। দোষ করলে তার ফল ভুগতেই হবে। আইন আইনের পথেই চলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here