kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা: কলকাতায় প্রথম করোনা আক্রান্ত পাওয়া যাওয়ার পরই নড়েচড়ে বসল কলকাতা পুরসভা। বোরোর ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডে বাড়ি ওই করোনা আক্রান্ত ওই যুবকের। এবার সেই ওয়ার্ডে পর্যবেক্ষণের জন্য বিশেষ দল পাঠাচ্ছে কলকাতা পুরসভা। বুধবার এমনটাই জানান ডেপুটি মেয়র তথা মেয়র পারিষদ স্বাস্থ্য অতীন ঘোষ। শুধু তাই নয়, ওই ওয়ার্ডে যতগুলো স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে সেগুলির ওপরও বিশেষ নজরদারি চালাচ্ছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। পর্যবেক্ষণের মধ্যে রাখা হয়েছে বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টার গুলোকেও।

পুরসভা সূত্রের খবর, ১০৯ নম্বর ওয়ার্ড-এর পাশাপাশি নজরদারি চালানো হবে দক্ষিণ কলকাতার আরও ১৬ টি ওয়ার্ডে। সেক্ষেত্রে বিশেষ নজর রাখা হবে পঞ্চসার, পাটুলি ও গড়িয়া এই এলাকা গুলির ওপর। সূত্রের খবর, এই সমস্ত এলাকা গুলির মধ্যে যতগুলো স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে, সেখানে সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত যা কিছু পরীক্ষা রয়েছে তার সমস্ত রিপোর্ট আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে চেয়ে পাঠিয়েছেন পুরস্বাস্থ্য অধিকর্তা। এমনকি ওই সমস্ত এলাকার বেসরকারি স্বাস্থ্য দফতর গুলোর রিপোর্ট ও চাওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ মার্চ ওই যুবক ইংল্যান্ড থেকে ফিরেছিলেন স্বরাষ্ট্র দফতরের এক উচ্চপদস্থ আমলার ছেলে। ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা তিনি। ভারতে ফেরার পর অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। সোমবার বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল তাঁকে। সেখান থেকে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করেই পাঠানো হয়েছিল বেলেঘাটা আইডিতে। সেই রিপোর্টে যুবকের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যায়। এরপরই ইংল্যান্ড থেকে আসার পর ওই যুবক যাঁদের সংস্পর্শে গিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে বিশেষত তাঁর মা-বাবা ও গাড়ির ড্রাইভারকে তড়িঘড়ি আনা হয় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। যেহেতু কলকাতায় ফিরে বেশ কিছু জায়গা ঘুরে বেড়ান ওই যুবক, তাই তার থেকে সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় সেদিকে নজর রেখেই এবার বিশেষ পদক্ষেপ নিল কলকাতা পুরসভা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here