kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, আসানসোল: বাঁকুড়ায় পাঁচ বছরে কোনও কাজ করেননি মুনমুন৷ সাংসদ হিসেবে তিনি পুরো ব্যর্থ৷  আসানসোল লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই বিরোধীরা এভাবেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছিল বাঁকুড়ার বিদায়ী সাংসদ মুনমুন সেনের বিরুদ্ধে৷ সিপিএম বলেছিল উনি তারকা, ভোট পেরোলেই আর ওনার দেখা মিলবেনা৷ গত বারের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে জনগণ আর ওনাকে ভোট দেবেন না৷ যদিও সব দাবি উড়িয়ে দিয়ে মুনমুন সেন বলেছিলেন, পাঁচ বছরে অনেক কাজই করেছি, অনেক কাজ বাকি রয়েছে৷ এবার আসানসোলেও কাজ করতেই এসেছি৷ আসানসোলে প্রচারের সময় এই দাবি করেছিলেন সুচিত্রা কন্যা৷

এবার আসানসোলের রবীন্দ্র ভবনে দলীয় বৈঠকে এসে কাজ করে দেখিয়ে দেবার প্রতিশ্রতি দিলেন তিনি৷ বিরোধীদের দাবি উড়িয়ে দিয়ে আসানসোলবাসীকে এভাবেই কাজ করার আশ্বাস দিয়ে গেলেন মুনমুন সেন৷ বললেন ‘ঝগড়া করবনা, আদোর করে কাছে টেনে নেব৷ সবাই ভালোবাসার অপেক্ষায় আছে৷ সেখানে সিপিএম, বিজেপি, কংগ্রেস বলে কিছু নেই, সব তৃণমূল৷ আমরা সুন্দর করে কাজ করে দেখিয়ে দেব কি করতে পারি আমরা৷’ তিনি আরও বলেন, আমার হাতে আসানসোল থাকবে। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসায় এই তারকা প্রার্থী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী একাই এতদিন লড়াই করে গেছেন৷ মুখ্যমন্ত্রী নিজের অভিজ্ঞতা দিয়েই আমাদের ভালো কাজ করানোর জন্য প্রার্থী করেছেন৷ মানুষের পাথে দাঁড়ানোর জন্য এত বড় দায়িত্ব দিয়েছেন৷

এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আসানসোলের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী মুনমুন সেন, জেলা সভাপতি ভি সিবদাশন, মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়াড়ি, জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুভদ্রা বাউরি, বিধায়ক, তাপস বন্দোপাধ্যায়, বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়, বিধায়ক উজ্বল চেট্টাপাধ্যায়, সহ পুরনিগমের এম এম আইসি, কাউন্সিলার ও কর্মীরা। এদিন বৈঠকে সকলে মিলে ভোটে জেতার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়াড়ি বলেন, আমাদের সকলকে একত্রিত হয়ে এই ভোটে লড়তে হবে। আমরা এমন একজন প্রার্থীকে জিতিয়ে দিল্লিতে পাঠাতে চায়, যিনি আমাদের সমস্যার কথা গিয়ে সংসদে বলবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here