Home Latest News মমতা আমার পরিবারের একজন, মৃত্যুশয্যায় মুনমুনকে বলে গিয়েছিলেন সুচিত্রা

মমতা আমার পরিবারের একজন, মৃত্যুশয্যায় মুনমুনকে বলে গিয়েছিলেন সুচিত্রা

0
মমতা আমার পরিবারের একজন, মৃত্যুশয্যায় মুনমুনকে বলে গিয়েছিলেন সুচিত্রা
Parul

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘মুনমুন শুধু আমার দলের নেত্রীই নন, ও আমার পরিবারের একজন।’ শুক্রবার আসানসোলের সভা থেকে মুনমুনের হাতে হাত রেখে জনগণের উদ্দেশ্যে এমনটাই জানালেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর কেন মুনমুন তাঁর পরিবারের অংশ তার ব্যাখ্যা করতে গিয়ে মহানায়িকা সুচিত্রা সেনকে টেনে এনে তৃণমূলের মঞ্চে এক অজানা গল্প শোনালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

আসানসোলে এদিনের সভার শুরু থেকেই বিজেপির বিরুদ্ধে ঝাঁঝালো আক্রমণ শানিয়ে গিয়েছিলেন মমতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বক্তব্যের শেষ লগ্নে এসে মুনমুনকে সঙ্গে নিয়ে স্নেহ ও নস্টালজিয়ায় ভেসে গেলেন মমতা। মুনমুনের মা তথা বাঙালির মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের কথা তুলে তাঁর সঙ্গে নিজের সম্পর্কের কথা তুলে ধরেন মমতা। বলেন, ‘মৃত্যুর আগে ৩০ বছর কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করেননি সুচিত্রা সেন। কিন্তু মৃত্যুর মাত্র কদিন আগে মুনমুনকে বলেছিলেন মমতাকে ডেকে দে। উনি বলেছিলেন, আমার মৃত্যুর পর যা করার মমতা করবে। আর কেউ কিছু করবে না। ও আমার পরিবারের একজন।’ এরপরই মুনমুনের হাত ধরে মমতা বলেন, ‘মুনমুন শুধু আমার দলের নেত্রীই নন, ও আমার পরিবারের একজন।’ পাশাপাশি মুনমুনের সমর্থনে তিনি আরও বলেন, ‘মুনমুন ভীষণ ভালো মেয়ে। ওকে ভোট দিয়ে জেতান। আমি কথা দিচ্ছি, নির্বাচনে জেতার পর এখানে এসে সেলিব্রেট করব আমরা।’

তবে শুধু মুনমুনের প্রশংসাই নয়, বিজেপিকে আক্রমণ করতেও বিন্দুমাত্র কার্পণ্য করেননি মমতা। তিনি বলেন, আসানসোলের বিজেপি সাংসদ শুধু আত্মপ্রচার করতে আর দাঙ্গা লাগাতে ওস্তাদ৷ কাজ করতে জানে না, শুধুই ঝামেলা পাকাতে জানে৷ এরপরেই আক্রমণের মোড় ঘুরিয়ে মোদীকে খোঁচাতে শুরু করেন দিদি৷ রাম মন্দির প্রসঙ্গ টেনে বলেন, পাঁচ বছরেও রাম মন্দির বানাতে পারেনি মোদী৷ এখানেই থামেননি তৃণমূল সুপ্রিমো, মোদীর সমালোচনায় ফের উঠে আসে বিজেপির ধর্মকে হাতিয়ার করে রাজনীতির প্রসঙ্গ, মমতা বললেন, ভোট এলেই বিজেপির মুখে রাম আর সীতার নাম ঝরে পড়ে৷ নোট বাতিল, জিএসটি, কৃষক আত্মহত্যা, এনআরসি সবই উঠে আসে মমতার গর্জনে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here